১৮০ কিমি বেগে ছুটল বন্দে ভারত, পড়ল না গ্লাস থেকে এক ফোঁটাও জল! বিশ্বকে দেখিয়ে দিল ভারতীয় রেল

ভারতীয় রেলের (Indian Railways) শীর্ষতাজ বন্দে ভারত এক্সপ্রেস (Vande Bharat Express)। এই হাইস্পিড রেল এমনিতেই অনেক গতিতে ছুটতে পারে। কিন্তু ট্রেনটির পরবর্তী ভার্সনও তৈরি করে ফেলেছে রেল। স্বয়ং রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব এই ট্রেনটির প্রোটোটাইপের উন্মোচন করেন। আর এবার সেই ট্রেনের ট্রায়াল রানের ভিডিও সামনে এসেছে।

রেলের ট্যুইট থেকে দেখা যাচ্ছে যে, রেলের মধ্যে থাকা স্পিডোমিটার জানাচ্ছে যে, ট্রেন তখন ছুটছে ১৮০ কিমি প্রতি ঘন্টা বেগে! রেলের তরফে জারি করা সেই ভিডিও দেখে তারিফ না করে কোনো উপায় নেই। ঝড়ের গতিতে ট্রেন ছুটছে ঠিকই কিন্তু এতটাই মসৃণ ভাবে ট্রেন চলছে যে, বোঝার উপায় নেই ট্রেনের মধ্যে রয়েছেন নাকি নিজের বেডরুমে শুয়ে আরাম করছেন।

গর্বের কথা হলো এই পুরো ট্রেন তৈরী হয়েছে ভারতে। জানলে অবাক হবেন যে, এই ট্রেন এত জলদি নিজের গতি বাড়াতে পারে যা বুলেট ট্রেন এর পক্ষেও করা সম্ভব নয়। রেলের তরফে জারি করা ট্রায়াল রানের ভিডিও দেখা যাচ্ছে ট্রেন ঝড়ের গতিতে ১৮০ কিমি বেগ নিয়ে হওয়া চিরে এগিয়ে চলেছে। আর সেই সাথে দেখা যাচ্ছে যে, ট্রেনের মধ্যে একটি টেবিলে রাখা জলভর্তি গ্লাস থেকে এক ফোঁটা জলও চলকে পড়ছে না।

গত মাসে রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের হাত ধরেই প্রথ প্রকাশ্যে আসে নতুন বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। রেলমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমি অত্যন্ত খুশি হয়েছি যে, নির্ধারিত সময়ের কম সময়ে দুর্দান্ত মানের বন্দে ভারত ট্রেন তৈরি করেছে ইন্টিগ্রাল কোচ ফ্যাক্টরি। এটি দুনিয়ার অন্যতম সেরা ট্রেন হয়ে উঠতে চলেছে। এই ট্রেনের যাত্রীদের জন্য এক অনন্য অভিজ্ঞতা অপেক্ষা করে আছে।’’

এদিকে রেলের জারি করা ভিডিও নিয়ে মুগ্ধ জনতা। যে স্পিডে ট্রেন ছুটছে তাতে ঝাঁকুনি অত্যন্ত বেশি হওয়ার কথা, কিন্তু আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে সেই বাধা অতিক্রম করেছে রেল। আর এই রেল ছোটার সাথে সাথেই মোদী সরকার এর আত্মনির্ভর ভারতের লক্ষ্যে যোগ হলো এক নয়া মাত্রা।

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি যে, আগামী ২০২৩ সালের আগস্ট মাসের আগে মোদী সরকার এরকম ৭৫টি বন্দে ভারত এক্সপ্রেস চালাতে চাইছে । ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে সেই নিয়ে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button