আজ ভাগ্য নির্ধারণ হবে সৌরভের, বড় সিদ্ধান্ত নিতে পারে BCCI

আজ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হতে চলা ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (Board of Control for Cricket in India) বার্ষিক সাধারণ সভায়  প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার রজার বিনি (Roger Binny) প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলির (Sourav Ganguly) স্থলাভিষিক্ত হবেন। এই বৈঠকে আইসিসি চেয়ারম্যানের পদ নিয়েও আলোচনা করা হবে।

ভবিষ্যত পদাধিকারীদের নির্বাচন একটি নিছক আনুষ্ঠানিকতা, কারণ সকলেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে চলেছেন। তবে সদস্যরা আলোচনা করবেন যে বিসিসিআই, আইসিসি চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী দেবে নাকি বর্তমান চেয়ারম্যান গ্রেগ বার্কলিকে দ্বিতীয় মেয়াদে সমর্থন করবে।

আইসিসির শীর্ষ পদের জন্য মনোনয়নের শেষ তারিখ 20 অক্টোবর। 11 থেকে 13 নভেম্বর মেলবোর্নে আইসিসি বোর্ডের বৈঠক হবে। বিসিসিআই থেকে গাঙ্গুলির বহুল চর্চিত প্রস্থান নিয়ে শুধু খেলার মহলেই নয়, রাজনৈতিক মহলেও অনেক আলোচনা হয়েছিল এবং এখন এই প্রাক্তন অধিনায়কের নাম আইসিসির শীর্ষ পদের জন্য বিবেচনা করা হয় কি না তা দেখতে আকর্ষণীয় হবে।

আলোচিত অন্যান্য নামগুলির মধ্যে রয়েছে ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর এবং প্রাক্তন বিসিসিআই সভাপতি এন শ্রীনিবাসন। শ্রীনিবাসন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার যোগ্য, তবে বিসিসিআই তার বয়স বিবেচনা করে তাকে সমর্থন দেয় কিনা তা দেখার বিষয়। শ্রীনিবাসনের বয়স বর্তমানে 78 বছর।

12 নভেম্বর হিমাচল প্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন হওয়ার কারণে অনুরাগ ঠাকুর আইসিসি বোর্ডের বৈঠকের সময় ব্যস্ত থাকতে পারেন। BCCI AGM-এ বোর্ডের সভাপতি হিসেবে বিন্নি, গাঙ্গুলির স্থলাভিষিক্ত হবেন। অন্যদিকে প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল-এ সভাপতি হিসেবে ফিরে আসতে চলেছেন৷

বিসিসিআইয়ের অন্যান্য পদাধিকারী যারা সর্বসম্মতভাবে নির্বাচিত হবেন তাদের মধ্যে রয়েছেন সেক্রেটারি জয় শাহ, আশিস শেলার (কোষাধ্যক্ষ), রাজীব শুক্লা (ভাইস প্রেসিডেন্ট) এবং দেবজিৎ সাইকিয়া (যুগ্ম সচিব)। আইপিএলের নতুন চেয়ারম্যান হবেন বিদায়ী কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল।

arun dhumal

মঙ্গলবার বিসিসিআই এজিএমের পর নবগঠিত আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধুমাল। এতে আইপিএল নিলামের তারিখ নির্ধারণ করা হবে এবং প্রথম মহিলা আইপিএল নিয়েও আলোচনা হবে, যা বোর্ড আইপিএলের আগে মার্চ মাসে আয়োজন করতে চায়। আগামী বছর ভারতে অনুষ্ঠেয় ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য কর অব্যাহতি নিয়েও আলোচনা হবে। ভারতে অনুষ্ঠিতব্য এই টুর্নামেন্টের জন্য যদি কেন্দ্রীয় সরকার আইসিসিকে কর ছাড় না দেয়, তাহলে বিসিসিআই 955 কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button