মুক্তির আগে ভুল করে ফাঁস হয়ে গেল পাঠানের আসল কাহিনী! মাথায় হাত শাহরুখ খানের

পাঠান সিনেমা নিয়ে বিতর্কের শেষ নেই। সোশ্যাল মিডিয়াতে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে সিনেমাটি। মুক্তির বহু আগের থেকেই বয়কট ট্রেন্ড শুরু হয়েছে ছবিটির বিরুদ্ধে। মানুষের বহু আপত্তি রয়েছে ছবিটিকে নিয়ে। কিন্তু এবার সেন্সরবোর্ডের কাঁচির সামনে পড়েছে শাহরুখ খানের (Shah Rukh Khan) পাঠান। পাঠান নিয়ে যে তথ্য সামনে এসেছে তা বেশ অবাক করার মতো।

জানা যাচ্ছে ভারতীয় সেন্সর বোর্ড (CBFC) ছবিটিতে ১২টি কাটের পরামর্শ দিয়েছে। CBFC নিজেদের সাইটে সেই পরামর্শ আবার জ্বলজ্বল করে পোস্ট করে দিয়েছে। কয়েকদিন আগেই পাঠান ছবিটির ট্রেলার রিলিজ হয়েছে। জানা গিয়েছে সেখানে খলনায়কের চরিত্রে অভিনয় করছেন জন আব্রাহাম। তার চরিত্র জিম একটি সন্ত্রাসসবাদী দলের অংশ।

সেন্সর বোর্ড জনের চরিত্র সম্পর্কে বড়সড় তথ্য ফাঁস করে দেয়। সেখানে বলা হয়েছে যে, জিমের চরিত্রকে RAW-এর প্রাক্তন  এজেন্ট হিসেবে দেখানো হয়েছে। আর সেখানে গল্পের একটা বড় অংশ ফাঁস হয়ে গিয়েছে। আর যতটুকু সাসপেন্স বাকি ছিল তা পূরণ করে দিয়েছে ব্রিটেনের সেন্সর বোর্ড। সেখানকার সেন্সর বোর্ড ছবিটির মূল প্লট ফাঁস করে ছবিটিকে 12A রেটিং সার্টিফিকেট দিয়েছে। অর্থাৎ ১২ বছরের বেশি বয়সীরা ছবিটি দেখতে পারবেন।

4a18a51d d122 4c80 99c5 b8c6a850af72

ছবিটি মশলাদার হওয়ার সাথে সাথেই যৌন দৃশ্যেও ভরে রয়েছে। ছবিতে মশলার নামে যৌনতার সঙ্গে মারামারিও রয়েছে। রক্তপাতের কথাও উল্লেখ করা হয়েছে বোর্ডের তরফে। সেন্সর বোর্ডের তরফেই লিক করা হয়ছে যে, গুলি খাওয়ার কারণে একটি চরিত্রের মুখ রক্তে ভর্তি হয়ে আছে।

প্রসঙ্গত, পাঠানের ইংরেজী সংস্করণে ‘গড’, ‘হেল’-এর মতো শব্দ রয়েছে। ব্রিটেনের সেন্সর বোর্ডের অবশ্য সেই নিয়ে কোনো আপত্তি নেই। ভারতে মোট ১২ টি দৃশ্য কাটা হলেও ব্রিটেনের সেন্সর বোর্ড মাত্র ১টি দৃশ্য কেটে দিয়েছে। যদিও ঠিক কোন দৃশ্যে কাঁচি ব্যবহার করা হয়েছে সেটাই এখনো জানা যায়নি।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button