তুমি বেঁচে থাকলে ৭৩-এও ধর্ষণের হুমকি পেতে মা! ভিডিওর মাধ্যমে বিস্ফোরক বার্তা রূপঙ্করের

আজ থেকে প্রায় আড়াই মাস আগে রূপঙ্কর বাগচী (Rupankar Bagchi) তীব্র কটাক্ষ করেন কেকে-কে। মৃত্যু হয় গায়ক কেকের। আর তারপর থেকে রূপঙ্করের জীবনেও নেমে আসে অশান্তি। তার সেই ‘হু ইজ কেকে ম্যান’, প্রশ্নের ঔদ্ধত্যের কড়া জবাব দিয়েছিল বাঙালি জনতা। কেকে মারা যাওয়ার আগে তাকে যেভাবে অপমান করেন রূপঙ্কর বাগচী, সেটা আমজনতা ভুলতে পারেনি।

গত ৩১শে মে থেকে নেটপাড়ার জনগণের কাছে তুমুল সমালোচনার পাত্র হয়ে বসেন তিনি। ট্রোলের হাত থেকে রক্ষা পায়নি তার পরিবারও। আর গতকাল ছিল তার মায়ের জন্মবার্ষিকী। এদিন গায়ক মায়ের উদ্দেশ্যে একটি ভিডিও পোস্ট করে লেখেন যে, ‘মা, তোমার আজ জন্মদিন। তুমি যদি বেঁচে থাকতে তাহলে তোমার বয়স হতো ৭৩।ভালোই হয়েছে তুমি আর নেই মা।নাহলে এই বয়সে ধর্ষণের হুমকি পেতে হয়তো! কারণ তোমার ছেলের নাম রূপঙ্কর। এই গানটি তোমার প্রিয়। তাই তোমার জন্য।’

রূপঙ্কর এদিন যে ভিডিও পোস্ট করেন তার মায়ের উদ্দেশ্যে সেখানে ব্যকগ্রাউন্ড মিউজিক শোনা যায় ‘সকাতরে ওই কাঁদিছে সকলে, শোনো শোনো পিতা।’ সেটাই নাকি তার মায়ের খুব পছন্দের গান। আর এদিন মায়ের জন্মবার্ষিকীতে এরকম আবেশী মন্তব্য করে তিনি দর্কশকদের অনুভূতি আদায় করতে চাইছেন বলেই মত অনেকের।

আসলে এখন রূপঙ্করকে নিয়ে চলা বিতর্ক অনেকটাই শান্ত হয়েছে। রূপঙ্করের অনেক অনুরাগী তার পাশে দাঁড়িয়েছে বর্তমানে। একজন অনুরাগী লেখেন যে, ‘তুমি সব সময় আমার প্রিয়। আর প্রিয় থাকবেও। মাসিমার আত্মার চির শান্তি কামনা করি। যা ঘটে গেছে সেটা ভেবে নিজেকে আর গুটিয়ে রেখনা আমার প্রিয় দাদা। তোমার নতুন অ্যালবাম চাই। অনেক ভালবাসা নিও’।

শুধু আমজনতা নয়, এদিন ভিডিওর কমেন্ট বক্সে মন্তব্য করেন খোদ বিখ্যাত গায়িকা লোপামুদ্রা মিত্র। সাথে জোজোর কমেন্টও সেখানে দেখা গেল। লোপামুদ্রা লিখেছেন যে, রূপঙ্করের মাকে তার ভালোবাসা, তার জন্যই এমন গায়ককে পেয়েছেন তারা।

কেকে এবং রূপঙ্কর এই বিতর্ক বহুদুর গড়িয়েছে। বহু ক্ষোভের মাঝে পড়ে বহু জায়গা থেকে বাদ দিতে হয়েছে রূপঙ্করকে। এখন দেখার নেটিজেনরা তাদের প্রিয় গায়ক কেকের অপমান ভুলে রূপঙ্করকে ক্ষমা করে দেন কিনা। যদিও রূপঙ্কর ক্ষমা চেয়েছিলেন, কিন্তু সেখানে ক্ষমা চাওয়ার থেকে অনেক বেশি ছিল ঔদ্ধত্য।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button