একসময় গুরুদ্বারে কাটত রাত, শৈশব কেটেছে দারিদ্র্যের মধ্যে! আজ ৬০ কোটি টাকার মালিক

ভারতীয় ক্রিকেট হামেশাই তরুণ প্রতিভা দিয়ে ভর্ত্তি থাকে। একের পর এক বিখ্যাত ক্রিকেটার অবসর নিলেও দেশে এত পরিমাণ তরুণ প্রতিভা রয়েছে যে, সেই স্থান বেশি দিন ফাঁকা থাকতেই দেয়না। তেমনই এক উঠতি প্রতিভার নাম ঋষভ পন্ত (Rishabh Pant)।

ঋষভ বর্তমান সময়ের বিখ্যাত ক্রিকেটারদের একজন। নিজের কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমেই তিনি আজকের এই অবস্থানে এসে পৌঁছেছেন। সম্প্রতি তিনি এক সাক্ষাৎকার দেন, সেখানে তার নিয়ে অনেক অজানা তথ্য উঠে এসেছে। জানা যায় উত্তরাখণ্ডের রুরকিতে বসবাসকারী পন্তের পরিবার তাকে দিল্লি ক্রিকেটের শীর্ষ অ্যাকাডেমিতে ভর্তি করতে চেয়েছিল।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ঋষভ বলেন, “আমি অনুশীলন করার জন্য স্কুলে যেতাম। তখনও অবধি মনে হয়নি যে, আমি পেশাদার ক্রিকেটার হতে চাই। কিন্তু আমার বাবা চেয়েছিলেন আমি বড় হয়ে একজন ক্রিকেটার হতে চাই। আমি একটি টুর্নামেন্টের 5 ম্যাচে প্রায় 115 রান করেছিলাম, সেখানে আমি এর জন্য ম্যান অব দ্য সিরিজ পেয়েছিলাম। এরপর আস্তে আস্তে আমার নাম কিছুটা বড় হতে শুরু করে এবং রুরকির লোকেরা তখন আমাকে অনেটাই চিনতে পেরেছে এবং আমি স্থানীয় ক্রিকেট খেলতে শুরু করেছি।”

এছাড়া রুরকি থেকে দিল্লি আসার বিষয়ে পন্ত বলেন, “সকালে রোডওয়েজের বাস চলত। সকাল দুইটা বা আড়াইটার বাস ধরতাম। স্যারকে বলতেন আমি দিল্লিতে আছি। আমি বাস থেকে নেমে সরাসরি অনুশীলনে চলে যেতাম।” এছাড়া দিল্লীতে থাকার জায়গাও ছিলনা তার, সেজন্য তিনি গুরুদ্বারে থাকার ব্যবস্থা করেছিলেন। তার মা ঋষভের অনুশীলন করার সময় যে গুরুদ্বারে মানুষের সেবা করতেন সে কথাও জানিয়েছেন ঋষভ।

এরপর ঋষভ অনূর্ধ্ব-১২ টুর্নামেন্টে তিনটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে সবার কাছে নিজের নাম বিখ্যাত করেছিলেন। সাথে ছিনিয়ে নিয়েছিলেন প্লেয়ার অফ দ্য টুর্নামেন্টের শিরোপা। পরবর্তি পড়াশুনার জন্য দিল্লি ক্যান্টের এয়ার ফোর্স স্কুলে ভর্তি হন ঋষভ। ব্যাস, তারপর থেকে আর ঘুরে তাকাতে হয়নি তাকে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে ২০১৬ সালে নেপালের বিপক্ষে ১৮ বলে হাফ সেঞ্চুরি করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন ঋষভ।

rishabh pant a

নেপালের পর সেই একই টুর্নামেন্টে ঋষভের কাঁধেই ভর করে সেমিফাইনালে পৌঁছায় টিম ইন্ডিয়া। এছাড়া ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে রঞ্জি ট্রফিতে ৪৮ বলে সেঞ্চুরি করে একরকম আতঙ্ক তৈরি করেছিলেন ঋষভ। সেই সময় দিল্লি ডেয়ারডেভিলস তাকে ১.৯ কোটি টাকা দিয়ে কিনে নেয় ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে খেলার জন্য। এছাড়া রঞ্জি ট্রফিতে তিনি মুম্বাই এর বিরুদ্ধে ট্রিপল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। তার সেই ঝড়ো ব্যাটিং এর কারনেই আজ ভারতীয় দলের এক অনবদ্য ব্যটার হয়ে উঠেছেন তিনি।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button