একসময় জুটত না খাবার, এখন পুরো দেশকে আইসক্রিম খাইয়ে বানিয়ে দিয়েছেন ৩০০০ কোটি টাকার কোম্পানি

ধনী হওয়ার স্বপ্ন কার না থাকে! কেউ কেউ তাদের পরিশ্রম, একাগ্রতা, ধৈর্য্য, নিষ্ঠার দ্বারা নিজের লক্ষ্যে পৌঁছান। এমনই একজন মানুষ হলেন রঘুনন্দন এস কামাথ। যিনি ন্যাচারাল আইসক্রিম নামে বিখ্যাত ব্র্যান্ড শুরু করেছিলেন, তিনি আজ একজন সফল ব্যবসায়ী।

শিশু থেকে বৃদ্ধ সবাই আইসক্রিম খেতে পছন্দ করে। এই মুহূর্তে বাজারে প্রচুর জনপ্রিয় আইসক্রিম ব্র্যান্ড রয়েছে। গ্রীষ্ম মানেই আইসক্রিম। কেউ ভাবতেও পারেনি এই আইসক্রিম থেকে মানুষ এতো আয় করতে পারে বলে। এমতাবস্থায়, আজ দেশের এমনই একটি আইসক্রিম ব্র‌্যান্ড হলো ন্যাচারাল আইসক্রিম। এই সংস্থার মুম্বাইতে একটি ছোট স্টোর হিসাবে শুরু হয়েছিল এবং আজ তা পৌঁছে গেছে দেশের প্রতিটি কোণায়।

রঘুনন্দন এস কামাথ কর্ণাটকের পুত্তুর তালুকের মুলকি নামে একটি ছোট গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবার ছিলো একটি গাছ এবং ফলের দোকান, যা থেকে সেই সময় মাসে ১০০ টাকাও উপার্জন হতোনা। সেই সময় ১০০ টাকার মূল্য অনেক ছিলো। পরিবারের মোট সদস্য সংখ্যাও নেহাত কম নয়। মা, বাবা ছাড়া তারা সাত ভাই বোন মিলিয়ে নয়জন সদস্য। এমতাবস্থায় রঘুনন্দনের শৈশব কেটেছে আর্থিক সংগ্রামের মধ্যে। একটু বড় হলেই কাজ খুঁজতে থাকেন‌ তিনি।

মাত্র ১৫ বছর বয়সে, রঘুনন্দন শ্রীনিবাস কামাথ মুম্বাই গিয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত নেন। মুম্বাই এসে তার এক আত্মীয়ের রেস্টুরেন্টে কাজ শুরু করেন। থাকার জন্য জায়গা বলতে জুহুর ১২ বাই ১২ ফুটের ছোট্টো একটি ঘর। কখনও কখনও এমনও হয়েছে যে জায়গা না থাকায় তাকে ঘুমাতে হয়েছে খাটের নীচে।

রঘুনন্দন বেশ বুঝতে পেরেছিলেন যে তার দারিদ্র্য থেকে মুক্তি পেতে হলে তাকে নিজের ব্যবসা শুরু করতে হবে। কিন্তু অর্থ ছাড়া ব্যবসা হয়না। এই ব্যাপারটা মাথায় রেখে টাকা সংগ্রহ করতে থাকেন। এমতাবস্থায় তার মনে হয় আইসক্রিমে যদি ফলের স্বাদ থাকতে পারে, তাহলে আসল ফল থেকে আইসক্রিম বানানো যাবেনা কেন? নিজের এই ধারণা অব্যাহত রেখে, তিনি ১৯৮৪ সালে মুম্বাইতে চারজন কর্মচারীর সহায়তায় নিজের ব্যবসা শুরু করেন। ভিন্ন ধরনের এই আইসক্রিম খুব অল্প সময়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠলো।

তারপর এই কোম্পানি বাজারে ১৫০ টিরও বেশি স্বাদের আইসক্রিম আনেন, যার মধ্যে রয়েছে লিচি, কলা, আম ইত্যাদি। এখন তিনি দেশের সবচেয়ে বড় ব্র্যান্ড ন্যাচারাল আইসক্রিমের মালিক। এখনও পর্যন্ত, ভারতে তাদের ১২৫ টি স্টোর রয়েছে, যার মধ্যে ৫ টি স্টোর সরাসরি তিনি নিজে পরিচালনা করেন এবং বাকিগুলি ফ্র্যাঞ্চাইজড হিসেবে চলছে

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button