‘ভারতীয় হতে পেরে ধন্য আমি”, স্বাধীনতা দিবসের আগে ধোনির বার্তা শুনলে আপনিও গর্ব করবেন

১৫ আগস্ট শুধুমাত্র একটা তারিখ নয়। নিজের দেশে নিজেদের অধিকার ফিরে পাওয়ার লড়াই, ব্রিটিশ বন্দিদশা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য অক্লান্ত লড়াই, সংগ্রামের ফলাফল ১৫ আগস্ট। আগামী ১৫ আগস্ট এই লড়াইয়ের ইতিহাসের ৭৫ বছর পূর্ণ হতে চলেছে। স্বাধীনতা লাভের মাহেন্দ্রক্ষণের সেই মুহূর্তকে উদযাপন করতে গোটা ভারত নিজেকে রাঙিয়েছে তেরঙ্গার রঙে।

এই বিশেষ দিনটিতে বাড়িতে বাড়িতে পতাকা উত্তোলন থেকে শুরু করে দেশাত্মবোধক গান গাওয়া হয়। সামাজিক মাধ্যম থেকে শুরু করে রাস্তাঘাট সবজায়গাতেই ছড়িয়ে থাকে শ্রদ্ধা মিশ্রিত আনন্দ। এই উপলক্ষে, ভারতের ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি যিনি তার দেশপ্রেমের জন্য বিশেষ পরিচিত, তিনি স্বাধীনতা দিবস পালন করছেন।

যদিও মহেন্দ্র সিং ধোনি সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব একটা সক্রিয় নন, কিন্তু স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপন করতে প্রায় ২ বছর পর নিজের ইনস্টাগ্রামের ডিপি বদলেছেন। প্রোফাইলে রেখেছেন তেরঙ্গা। শুধু তাই নয় ধোনির ছবি এবং ভিডিও ব্লগিং ওয়েবসাইটের প্রোফাইল পিকচারেও জ্বলজ্বল করছে আমাদের জাতীয় পতাকার ছবি।

এর পাশাপাশি ক্যাপশনে লিখেছেন- ‘আমি একজন ভারতীয় হতে পেরে ধন্য।’ প্রোফাইল পিকচারে এই লাইনটি হিন্দি, ইংরেজি এবং সংস্কৃত তিনটি ভাষায় লেখা। প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়কের গগনচুম্বী ফ্যান ফলোয়িংয়ের দৌলতে নিমেষের মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে খবরটি।

ধোনির কেরিয়ারের কথা বললে, তাকে পৃথিবীর সেরা ক্রিকেটারদের একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। উইকেটরক্ষক, অধিনায়ক ও ফিনিশার হিসেবে ক্রীড়া জগতে আলাদা পরিচিতি তৈরি করেছেন তিনি। ক্রিকেট ইতিহাসে ধোনিই একমাত্র অধিনায়ক যিনি তিনটি আইসিসি ট্রফি জিতেছেন। ধোনির নেতৃত্বে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০০৭, ওডিআই বিশ্বকাপ ২০১১ এবং চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি ২০১৩ ঘরে এনেছে ভারত।

screenshot 2022 08 13 at 3.40.18 pm

ক্রিকেট জগতে তার অবদান যে কতখানি তা আর নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখেনা। এমনকি তার কাছে কাজের কর্তব্য এতোটাই গুরুত্বপূর্ণ নিজের মেয়ের জন্মের সময়ও সেখানে উপস্থিত ছিলেননা তিনি। এই বিষয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলে ধোনি বলেছিলেন, “আমার একটি মেয়ে হয়েছে। মা মেয়ে দুজনেই ভালো আছে। কিন্তু এই মুহূর্তে আমি জাতীয় দায়িত্বে আছি, তাই আমি মনে করি অন্য সবকিছু অপেক্ষা করতে পারে। বিশ্বকাপ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অভিযান।” ক্রিকেট জগতে তার অবদানের পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাথেও হাজির হন। ৪১ বছর বয়সী এই প্রাক্তন অধিনায়ক ভারতীয় টেরিটোরিয়াল আর্মিতে লেফটেন্যান্ট কর্নেলের সম্মানসূচক পদে রয়েছেন এবং একজন যোগ্য প্যারাট্রুপারও।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button