লোয়ার বার্থে কীভাবে পাবেন কনফার্ম টিকিট, দারুণ উপায় জানালো ভারতীয় রেল

রেলের (Indian Railways) মাধ্যমে সারাদিনে কয়েক লক্ষ মানুষ যাতায়াত করেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। দূর যাত্রা হোক কি সামনে, রেল সর্বদাই মানুষের প্রথম পছন্দ। তার বহু কারণ থাকলেও দুটি প্রধান কারণ হলো ভাড়া কম এবং যাত্রাপথ বেশ আরামদায়ক হয়। কিন্তু ট্রেনের টিকিট বুকিং এর ক্ষেত্রে রয়েছে কিছু বিশেষ নিয়ম, আবার সিনিয়র সিটিজেনরা পেয়ে যান বিশেষ কোটা।

অনেকেই হয়তো জানেন না, কিন্তু সিনিয়র সিটিজেনরা লোয়ার বার্থের জন্য অগ্রগণ্য হন। কিন্তু সম্প্রতি এক যাত্রী টিকিট বুকিং নিয়ে ভারতীয় রেলকে নিজের অভিযোগ জানান। সেখানে তার প্রশ্ন ছিল তিনি সিনিয়র সিটিজেন হলেও কেন মেলেনি লোয়ার বার্থ? ভারতীয় রেলের কি নির্দেশিকা রয়েছে ট্রেনে লোয়ার বার্থ পাওয়ার জন্য? আজকের প্রতিবেদনে সেই কথাই জানাবো আপনাদের।

লোয়ার বার্থ না পেয়ে রেলওয়েকে বেশ কয়েক কথা শুনিয়ে দেন ওই যাত্রী। তিনি রেল কর্তৃপক্ষকে প্রশ্ন করেন যে , “কেন সিনিয়র সিটিজেনের নামে টিকিট বুকিং করা হলেও তিনি লোয়ার বার্থ পেলেন না।” শুধু তাই নয়, ক্ষোভে ফুঁসতে থাকা ওই ব্যক্তি কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবকে টুইটারে ট্যাগ করে লেখেন যে, কীভাবে রেল সিট বুক করা হয়। তাঁর অভিযোগ তিন প্রবীণ টিকিট বুক করতে গিয়ে লোয়ার বার্থের টিকিট পাননি। কিন্তু ট্রেনে চেপে দেখেন যে, সেখানে ১২০ টি লোয়ার বার্থের সিট ফাঁকা রয়েছে। তিনি তক্ষুনি রেল কর্তৃপক্ষের কাছে এই ঘটনার জবাবদিহি করেন।

rail train

কি বলেছে রেল কর্তৃপক্ষ :- রেল স্পস্টভাবেই জানিয়েছে যে, “নীচের বার্থ বা সিনিয়র সিটিজেন কোটা বার্থ ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সের জন্য, লোয়ার বার্থ ৪৫ বছর বা তার বেশি বয়সী মহিলাদের জন্য নির্দিষ্ট করা হয়েছে।”, এছাড়া তারা আরো জানায় যে, “যখন দু’জনের বেশি ব্যক্তি সিনিয়র সিটিজেন থাকে বা একজন প্রবীণ নাগরিক এবং অন্যজন প্রবীণ নাগরিক না হন, সেক্ষেত্রে সিস্টেম তা বুঝতে পারে না।” সহজ কথায় দুইজন পর্যন্ত প্রবীণ ব্যক্তি থাকলে মিলবে লোয়ার বার্থের সুবিধা, কিন্তু তিনজন একসাথে থাকলে সিস্টেম সেই তথ্য বুঝতে পারেনা।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button