মাত্র ৪১৭ টাকা বিনিয়োগে হয়ে যান কোটিপতি, বাম্পার স্কিম পোস্ট অফিসের

গ্রাহকদের জন্য আকর্ষণীয় স্কিম নিয়ে এল ভারতীয় ডাক বিভাগ (India Post)। প্রতিদিন ৪১৭ টাকা করে জমা দিয়ে ১৮ লাখ পর্যন্ত রিটার্ন পেতে পারেন। মেয়াদ শেষে উচ্চ রিটার্ন পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে পোস্ট অফিসের এই স্কিম জানতে হবে।

এমনই একটি স্কিম হল Post Office-এর পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) স্কিম। এই স্কিমটি দীর্ঘমেয়াদে আপনাকে মোটা সঞ্চয় করতে সাহায্য করবে। এরজন্য আপনাকে প্রতিদিন ৪১৭ টাকার বিনিয়োগ করতে হবে। এই স্কিমের বিশেষত্ব হল এতে বিনিয়োগ হয় পুরোপুরি নিরাপদ ও সুরক্ষিত।

যদিও এই স্কিম বিনিয়োগের সর্বোচ্চ মেয়াদ ১৫ বছর কিন্তু আপনি চাইলেই পরবর্তী ৫-৫ হিসেবে আরও ১০ বছর বাড়াতে পারেন। পোস্ট অফিসে বর্তমানে PPF স্কিমে ৭.১ শতাংশ হারে বার্ষিক সুদ দেওয়া হয়। এছাড়াও রয়েছে প্রতি বছর চক্রবৃদ্ধি হারের সুবিধা। জানিয়ে রাখা ভালো Post Office বা ব্যাঙ্কের শাখায় পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) অ্যাকাউন্ট সক্রিয় রাখতে ন্যূনতম বার্ষিক বিনিয়োগ প্রয়োজন ৫০০ টাকার৷

প্রথমে আপনাকে Post Office বা ব্যাঙ্কের শাখায় পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড (PPF) অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। যদি কেউ স্কিমটি ১৫ বছর পর আবার ৫ বছর ও ৫ বছরের জন্য বিনিয়োগ আরও ১০ বছর চালিয়ে যান এবং তাতে বার্ষিক ১.৫ লক্ষ টাকা জমা করেন তাহলে আপনার মোট সঞ্চয় হবে ৩৭.৫০ লক্ষ টাকা। এবং এরপর সুদ সহ মিলবে ৬৫.৫৮ লাখ টাকা। এক্ষেত্রে ৭.১ শতাংশ হারে সুদ ধরা হয়েছে। চক্রবৃদ্ধি হারে এই সুদ গণনা করা হয়। এই হিসেবে ২৫ বছর পর আপনার মোট সঞ্চয় হচ্ছে ১.০৩ কোটি টাকা।

আসুন দেখে নেওয়া যাক কারা এই স্কিমে বিনিয়োগ করতে পারবেন

বেতনভোগী, স্ব-নিযুক্ত, পেনশনভোগী ইত্যাদি সহ যেকোন বাসিন্দা পোস্ট অফিসের পিপিএফ-এ একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খোলার সুবিধা নেই। যদি বিনিয়োগকারী নাবালক/নাবালিকা হয় তবে বিনিয়োগকারীর পিতামাতা এই অ্যাকাউন্টটি খুলতে পারেন। প্রবাসীদের ক্ষেত্রে এই সুযোগটি কার্যকর হবে না।

এই স্কিমটি চালু করার জন্য লাগবে

পরিচয় প্রমাণ – ভোটার আইডি, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, আধার কার্ড
ঠিকানার প্রমাণ- ভোটার আইডি, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, আধার কার্ড প্যান কার্ড পাসপোর্ট সাইজের ছবি।

indian money husband wife

PPF স্কিমের সবচেয়ে বড় সুবিধার মধ্যে একটি হল এটিতে আয়করে মিলবে ছাড়। এছাড়াও PPF থেকে পাওয়া সুদ ও ম্যচিওরিটির পরিমাণও হবে করমুক্ত। তবে বিনিয়োগকারীর একটি কথা মাথায় রাখা আবশ্যক যে , PPF অ্যাকাউন্টের মেয়াদ ১৫ বছর থেকে ২৫ বছর করতে হলে এক বছর আগে আবেদন করতে হবে। মেয়াদপূর্তির পর আর মেয়াদ বৃদ্ধি করা যায় না।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button