শিয়ালদহ ডিভিশনে এই স্টেশনের আমূল পরিবর্তন করতে চলেছে রেল, দেখলে ধাঁধিয়ে যাবে চোখ

শহরের গুরুত্বপূর্ন রেল স্টেশন শিয়ালদহ (Sealdah)। আর এই শিয়ালদহ শাখার এক অতি গুরুত্বপূর্ণ রেল স্টেশন ঢাকুরিয়া (Dhakuria)।এতদিন উপেক্ষিত থাকলেও এবার স্টেশনের ভোল বদল হতে চলেছে। একবারে আধুনিক ধাঁচে তৈরি করা হবে নয়া স্টেশন। কি থাকবে না সেখানে, খাবার দোকান থেকে বইয়ের স্টল, এটিএম কাউন্টার থেকে ওষুধের দোকান। একেবারে ছিমছাম আধুনিক স্টেশনে পরিবর্তিত করা হবে।

স্টেশনকে আধুনিক রূপে সাজিয়ে তোলার জন্য ৯০ হাজার বর্গফুট জুড়ে বৃহৎ স্টেশন কমপ্লেক্স তৈরি করবে রেল (Indian Railways)। আর সেখানে আধুনিক সমস্ত সুবিধা উপলব্ধ থাকবে। যাত্রীদের সুবিধার্থে সেখানে পার্কিং লটের ব্যবস্থাও করা হবে। রেলের নয়া প্ল্যান দেখলে আপনি পুরনো ঢাকুরিয়া স্টেশনকে আর চিনতেই পারবেন না।

তবে শুধু ঢাকুরিয়া স্টেশন নয় রেল সারারাজ্যের একাধিক স্টেশনে বদল আনতে চলেছে। তালিকায় প্রথমেই রয়েছে ঢাকুরিয়া স্টেশন। সেই তালিকায় আরও রয়েছে কৃষ্ণনগর, মালদা টাউন, ঝাড়গ্রাম এবং বাঁকুড়া স্টেশন। প্রথম দফায় উন্নয়ন করা হয় হয় লিলুয়া স্টেশনকে।

রেলের তরফে ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে যে, এই কাজের দায়িত্ব পড়েছে রেল ল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটির হাতে। তারা আগামী ৪৫ বছরের জন্য দোকান বা পার্কিং লট লিজে দেবে। ফলে দীর্ঘমেয়াদে ভালো রোজগার করতে পারবেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

এছাড়া অনেকক্ষেত্রেই জমি নিয়ে জট থাকলেও এবার সেই সমস্যা নেই আর। রেলের আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে, এই প্রকল্পে জমি নিয়ে বাধা পাওয়ার সম্ভবনা প্রায় নেই বললেই চলে। এছাড়া জায়গা গুলো ইতিমধ্যেই রেলের অধীনেই রয়েছে, ফলে এই নিয়ে সমস্যার কোনো সুযোগই নেই।

bty
bty

প্রসঙ্গত রেল ল্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি অর্থাৎ RLDA এই ধরনের ৫৪ টি প্রকল্পর বরাত দিয়েছে বিভিন্ন সংস্থাকে। ইতিমধ্যে ১৬ টি নির্মাণকার্যে রয়েছে। বাকিগুলো শীঘ্রই শুরু হতে চলেছে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button