IRCTC থেকে বুক করুন টিকিট, বারাণসী ঘুরতে ৫ হাজার টাকা দেবে সরকার! এভাবে নিন ফায়দা

প্রধানমন্ত্রী মোদীর স্বপ্নের বন্দে ভারত ট্রেন এখন সারাদেশের গর্ব। যেখানে কথা হচ্ছিল বিদেশ থেকে উন্নত মানের ট্রেন নিয়ে আসার সেখানে নরেন্দ্র মোদী ভরসা রাখেন দেশের ইঞ্জিনিয়ারদের ওপর। দেশের অন্দরেই পুরো শুরু থেকে ডেভেলপ করা হয় এই অত্যাধুনিক ট্রেনের।

মেড ইন ইন্ডিয়া এবং আত্মনির্ভর ভারতের লক্ষ্যমাত্রাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে একরকম জরুরি পদক্ষেপ নেয় রেল। আর ২০১৭ সালে সিদ্ধান্ত নেওয়ার এক বছরের মধ্যেই রাস্তায় নামে প্রথম বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। ধীরে ধীরে সেই ভ্যারিয়েন্টকে আরো উন্নত করে তোলা হয়।

অনেক গবেষণা চালানোর পর তৈরি হয়েছে আজকের বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। উত্তরাংশে দুটি ট্রেন চালানোর পর এবার ভারতের দক্ষিণেও শুরু হচ্ছে এই ট্রেন। আর সেইজন্য এই ট্রেন প্রথমবার ছাড়ার সময় সেখানে উপস্থিত থাকেন দেশের প্রধানমন্ত্রী মোদী।

তবে এদিন বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ছাড়াও আরো একটি ট্রেনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এই ট্রেনটি ভারতের গৌরব ময় ইতিহাসকে দেখানোর জন্য বানানো হয়েছে। দুটি ট্রেনকেই সবুজ পতাকা দেখান খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দ্বিতীয় ট্রেনটি আসলে ভারতের গৌরব কাশী দর্শনের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে।

ভারতীয় রেলের ভারত গৌরব নীতির অধীনে এই ট্রেন চালানো হচ্ছে। কর্ণাটক থেকে কাশী পর্যন্ত যাবে এই ট্রেন। ট্রেনের মধ্যে ৮ দিনের সফর হবে। ভ্রমণের জন্য ভক্তদের বিশেষ ছাড় দেব সরকার। তাছাড়া তীর্থযাত্রীদের মিলবে ৫,০০০ টাকা ভর্তুকি! এই প্যাকেজে আপনি বারাণসী, অযোধ্যা এবং প্রয়াগরাজের মতো বহু তীর্থস্থান ঘুরে আসতে পারেন।

bharat gaurav train

দেখে নিন নতুন বন্দে ভারত ট্রেন রুট কোথায় শুরু হল : দক্ষিণ ভারতের প্রথম বন্দে ভারত ট্রেনটি বেঙ্গালুরুর ক্রান্তিবীর সাঙ্গোলি রায়ান্না রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছাড়ে। ট্রেনটি মহীশূর এবং চেন্নাই হয়ে বেঙ্গালুরু অবধি চলবে। বিভিন্ন শহরের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা গ্রহণ করবে এই ট্রেন। উল্লেখ্য এটি দেশের পঞ্চম বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেন।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button