প্রয়াত বাবাকে গেয়ে শ্রদ্ধা জালানেল ছেলে বাপ্পা, বেছে নিলেন বাপ্পি লাহিড়ীর বিশেষ গান

কলকাতাঃ সদ্য অনুষ্ঠিত হয়েছে জি বাংলার সোনার সংসার অ্যাওয়ার্ড। জি বাংলা প্রতিবছরই নিজেদের চ্যানেলের কলাকুশলীদের নিয়ে আয়োজিত করে একটি অ্যাওয়ার্ড শো। যেখানে উপস্থিত থাকেন ধারাবাহিকে প্রতিটি চরিত্র, পরিচালক, প্রযোজক, থেকে শুরু করে প্রত্যেকে। প্রতিবছরই এই চ্যানেলের শিল্পীদের মধ্যে সেরাকে বেছে নিয়ে তাদেরকে সম্মানিত করা হয়।

কয়েকমাস আগেই বিখ্যাত গায়ক বাপ্পি লাহিড়ী চিরনিদ্রার দেশে পাড়ি দিয়েছেন। তাঁর চলে যাওয়ায় সৃষ্টি হয়েছে শূন্যস্থান। এদিন জি বাংলার মঞ্চে উপস্থিত সকলেই শ্রদ্ধার্ঘ্য জানান বাপ্পি লাহিড়ীর উদ্দেশ্যে। মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন জাভেদ আলীর মতো গায়ক। ঐদিন মঞ্চে বাপ্পি লাহিড়ীর বেশ কয়েকটি সুপার হিট গান গেয়ে শোনান তিনি। এর পাশাপাশি ঐদিন অবশ্যই উপস্থিত ছিলেন বাপ্পি লাহিড়ীর ছেলে বাপ্পা লাহিড়ী। তিনি এই মঞ্চেই গান গেয়ে শ্রদ্ধার্ঘ্য জানালেন প্রয়াত বাবা বাপ্পা লাহিড়ীকে। বাপী লাহিড়ী মারা যাওয়ার সময় তিনি তাঁর পাশে উপস্থিত ছিলেন না। খবর পেয়ে ছুটে আসেন এখানে।

গান গাইতে গাইতে জাভেদ আলী বাপ্পা লাহিড়ী কে মঞ্চে ডেকে নেন এবং দুজন মিলে সমবেত হয়ে গানে গানে স্মরণ করেন প্রয়াত সংগীত শিল্পীকে। ঐদিন বাপ্পা লাহিড়ীর বিখ্যাত গান “কভি আলবিদা না কেহেনা” গানটি গেয়ে শোনান।

জি বাংলার পুরষ্কার বিতরণী মঞ্চ থেকে এই ভিডিও ক্লিপটি শেয়ার করেছে জি বাংলার অফিশিয়াল পেজ। দীর্ঘ রোগভোগের পর মুম্বইয়ের এক হাসপাতালে প্রয়াত হন বাপ্পিদা। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর। সত্তর-আশির দশকে বলিউডে একটার পর একটা সুপারহিট গানের স্রষ্টা বাপ্পি লাহিড়ী। ডিস্কো ডান্সার, জিমি জিমি-এর মতো জনপ্রিয় গানের স্রষ্টা তিনি। দীর্ঘ দিন বাংলা ও হিন্দি ছবির গান গেয়েছেন। সুর দিয়েছেন। সবসময় প্রচুর সোনার গয়না পরতে ভালবাসতেন। বলিউডে নিজের স্টাইল স্টেটমেন্ট তৈরি করেছিলেন গলায় সোনার চেন। হাতে সোনার চেন সঙ্গে কালো জামা। বাপ্পি লাহিড়ির নিজের স্টাইল স্টেটমেন্ট ছিল। বাপ্পি লাহিড়ি নিজে গানও গেয়েও ছিলেন তিনি।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button