রাতের কলকাতায় অপরাজিতা আঢ্যর গাড়ি লক্ষ্য করে ইটবৃষ্টি! হামলা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

তিলোত্তমা কলকাতায় (Kolkata) মধ্যরাতে আক্রমণ হয় বিখ্যাত অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্যর (Aparajita Adhya) ওপর! হঠাৎ করেই চলতে থাকে ইট বৃষ্টি আর তারপর গাড়ি ভাঙচুর। ভাগ্যক্রমে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছেন তিনি। গতকাল ছবির প্রচার সারতে বেরিয়েছিলেন তিনি। এরপর কাজ শেষে স্টুডিওতে ফিরেছিলেন তিনি।

‘লক্ষ্মীকাকিমা সুপারস্টার’-এর শ্যুটিং করার জন্য স্টুডিওতে ফিরে যেতে হয় তাকে। এরপর শ্যুটিং চলে একদম মধ্যরাত অবধি। বেরোতে বেরোতে রাত্রি ১২টা পেরিয়ে যায়। হঠাৎ ফোন আসায় তাকে যেতে হয় রূপটান ঘরে, কিন্ত তারই মাঝে আক্রমণ হয় তার ওপর।

দূর থেকে এলোপাথাড়ি ইঁটবৃষ্টি শুরু হয় তাকে লক্ষ্য করে। এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অপরাজিতা বলেন, ‘স্টুডিওর সামনেই রাখা ছিল আমার গাড়িটা। দাদার ফোন আসায় আমি সেট ছেড়ে স্টুডিও থেকে বেরিয়ে মেকআপ রুমে চলে গিয়েছিলাম। বাকি সবাই তখন শটে ছিল। ওইসময় কেউ স্টুডিও সামনে থাকলে বড়সড় ক্ষতি হতে পারত। আমার গাড়িটা কেবল সামনে ছিল। আর তাই ওটাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কাচ ভেঙেছে, দুমড়ে গিয়েছে কিছুটা অংশ। গাড়িতে আমি থাকলে ইটটা আমার মুখে এসে লাগত।’

এদিকে ঘটনার আকস্মিকতায় অবাক সবাই। সারারাতই শ্যুটিং হয় কোথাও না কোথাও, তাই মানুষের আনাগোনা সেখানে লেগেই রয়েছে। তার মাঝে এহেন কাজ করছেটা কে! ঘটনা প্রসঙ্গ অপরাজিতা আরো বলেছেন , ‘আমি ফোন করেছিলাম আজ সকালে। আমায় জানানো হয়, একজন মানসিক বিকারগ্রস্ত মানুষের কাজ এটা। প্রায় ৩০০-৪০০ ইট ছোঁড়া হয়েছে রাতে। ২৫-৩০টা ইট এসে পড়েছে স্টুডিওর ভিতরেই। জানি না এটা কি করে একজন মানুষের কাজ হতে পারে!’

aparajita adhya 5nov

আসলে গাড়িখানা নাকি খুবই প্রিয় অপরাজিতার। হঠাৎ এরকম ক্ষতি হয়ে যাওয়ায় ভীষণ মন খারাপ তার। এভাবে ক্ষতি হয়ে যাবে সেটা তিনি কল্পনাও করেননি। নিজেই জানান যে, ঘুমের ওষুধ খান তিনি সেই দুর্ঘটনা থেকে ফিরে, কিন্ত তাও ঘুম আসেনি তার! রিপোর্ট অনুযায়ী কান্নাকাটিও করতে দেখা যায় তাকে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button