সব্যসাচী সুস্থ আছে, ভুয়ো খবর ছড়ালে আইনি পদক্ষেপ! স্পষ্ট হুঁশিয়ারি সৌরভের

গত ২০ নভেম্বর রবিবারের বারবেলায় সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি দিয়েছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)। আদরের ছোট মেয়েকে হারানোর শোকে কার্যত পাথর হয়ে গিয়েছে অভিনেত্রীর বাবা-মা। তবে এসবের মধ্যে অনুরাগীদের উৎকণ্ঠা ছিল সব্যসাচীকে (Sabyasachi Chowdhury) নিয়ে। ঐন্দ্রিলাকে ছাড়া তাঁর ‘সব্য’ কেমন আছেন?

ভক্তদের মনে যখন এই প্রশ্ন তোলপাড় শুরু করেছে ঠিক সেই সময়ই খবর এল সব্যসাচী নাকি গুরুতর অসুস্থ। গত বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে আচমকা এমন খবরে তোলপাড় চারদিক। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে মুহূর্তে। সোশ্যাল মিডিয়ার দাবি ঐন্দ্রিলা শর্মা চলে যাওয়ার পর তিনিও শয্যা নিয়েছেন।

তবে সত্যিই কি তাই? সম্প্রতি এই নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতা বন্ধু সৌরভ দাস (Sourav Das)। বলা ভালো একপ্রকার হুমকিই ছুড়ে দিলেন তিনি। আসলে ঐন্দ্রিলা অসুস্থ থাকাকালীনই নিজেকে সমাজমাধ্যম থেকে গুটিয়ে নিয়েছিলেন সব্যসাচী, আর সেই কারণেই তাকে নিয়ে গুজব ছড়ানো টা সহজ বলে মনে করছেন সৌরভ।

তাই একপ্রকার দায়িত্ব নিয়েই এই সমস্ত গুজবে ইতি টানলেন তিনি। এইদিন মধ্যরাতে ফেসবুকে পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘‘সব্যসাচী সুস্থ আছে। সঙ্গে আছি আমি এবং থাকব।’’ যারা ভুয়ো খবর রটাচ্ছে তাদের কটাক্ষ করে তিনি বলেন, যারা ভুয়ো খবর রটাচ্ছেন, তারা অসুস্থ, বিব্রত হবেন না।

এরকম একটা গুরুতর পরিস্থিতিতে এসব রটনা যে কতটা বিরক্তির উদ্রেক করে তাও বুঝিয়ে দিলেন তিনি। পোস্টের শেষ অংশে লিখেছেন, তিনি গালমন্দ করতে রাজি নন এই পোস্টে, যাতে শেয়ার করে সবাই সব্যসাচীর ব্যাপারে জানাতে পারেন।

saurav das

এরসাথে তিনি হুমকি দেন, যদি ভুয়ো খবর ছড়ানো হয়, সে ক্ষেত্রে আইনি পদক্ষেপ করা হবে। পাশাপাশি অভিনেতার অনুরোধ, ‘‘দয়া করে পরিবার পরিজনকে শান্তিতে থাকতে দিন।’’ এর আগেও সংবাদমাধ্যমের তিনি বলেছিলেন, ‘সব্য ভেঙে পড়েছে’। তাই এমতাবস্থায় তাকে বিব্রত না করে একা থাকতে দেওয়াটাই সমিচীন মনে করছেন তিনি।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button