আসছে গরম, আজ বাংলায় তুমুল দুর্যোগ! দক্ষিণবঙ্গ থেকে বৃষ্টি বিদায় কবে? জানা গেল দিনক্ষণ

শুরু হয়েছে ঝিরঝিরে বৃষ্টি। ভরা মাঘ মাসে ঝেঁপে বৃষ্টি নামায় সবকিছু যেন ওলটপালট হয়ে গিয়েছে বাংলার মানুষের। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাসকে সত্যি করে কলকাতা (Kolkata) শহর সহ দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) জেলায় জেলায় বদলে গিয়েছে আবহাওয়া। নেমেছে বৃষ্টি।

তবে এখনি কিন্তু মিলবে না রেহাই। হ্যাঁ এখন দিনকয়েক চলবে এই অসময়ের দুর্যোগ। এমনই পূর্বাভাস জারি করে জানিয়ে দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। হাওয়া অফিস আরো যা যা বলেছে তা শুনে আপনারও চোখ একপ্রকার ছানাবড়া হয়ে যেতে পারে। আজ শুক্রবারও বাংলার জেলায় জেলায় অর্থাৎ উত্তরবঙ্গ থেকে শুরু করে দক্ষিণবঙ্গ ভিজবে বৃষ্টিতে।

   

এদিকে সারারাত ধরে বৃষ্টি হলেও শহর কলকাতায় তাপমাত্রায় খুব একটা হেরফের হয়নি। আপনিও যদি আজ উত্তরবঙ্গে যাওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন তাহলে সেখানে যাওয়ার আগে দশবার ভেবে নিন। কারণ আজ দার্জিলিং সহ উত্তরবঙ্গের সব জেলাতেই শুক্রবার কমবেশি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়া কলকাতা, বাঁকুড়া, হুগলী, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূমে বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। আজ কিছু জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝেঁপে বৃষ্টি নামার পূর্বাভাস জারি করা হয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের তরফে। এছাড়া শনিবার, রবিবার এবং সোমবার দক্ষিণবঙ্গের কোনও জেলায় বৃষ্টি হবে না। শনিবার, রবিবার এবং সোমবার দার্জিলিং ও কালিম্পঙে হালকা বৃষ্টি হতে পারে। দার্জিলিঙে তুষারপাতের সম্ভাবনা আছে।

rain weather

কলকাতার পারদ ২০ ডিগ্রির নিচেই রয়েছে। তবে হু হু করে পারদ চড়েছে বিগত কয়েকদিনে। এদিকে হাওয়া অফিসের বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, আগামী পাঁচদিনে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে রাতের তাপমাত্রার কোনও হেরফের হবে না। তবে কি শীতকে বিদায় জানানোর সময় এসে গেছে? এই প্রসঙ্গে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় অধিকর্তা সোমনাথ দত্ত বলেন, ‘শীত যে বিদায় নিয়েছে, সেটা এখনই বলতে পারব না। শীত যে বিদায় নিয়েছে, সেটা এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে কোনওভাবেই বলা যায় না। আর কয়েকদিন পরেই রাজ্যে উত্তর-পশ্চিমী বায়ু ঢুকতেই পারে।’

সম্পর্কিত খবর