জগন্নাথ মন্দির অতীত, এবার দিঘায় তৈরি হবে মসজিদ! জমি দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও সেজে উঠছে সৈকত নগরী দীঘা (Digha)। বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় এই পর্যটন কেন্দ্রকে সাজিয়ে তোলার জন্য চেষ্টার কোনো কসুর রাখছে না রাজ্য সরকার (Government Of West Bengal)। সেই সঙ্গে রয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি দাওয়া। এবার সেই চাহিদা থেকে দীঘায় তৈরি করা হতে পারে একটি মসজিদ (Masjid)।

দীঘায় পুরীর জগন্নাথ দেবের মন্দিরের আদলে তৈরি হচ্ছে একটি মন্দির। এবার এই সৈকত নগরীতে তৈরি করা হতে পারে একটি মসজিদ। দীঘায় মসজিদ তৈরি করানোর ব্যাপারে দাবি জানানো হয়েছে উলেমা-ই হিন্দের পক্ষ থেকে। পূর্ব মেদিনীপুর (Purba Medinipur) জেলা জমিয়তে উলেমা-ই হিন্দের উদ্যোগে ও রামনগর ব্লক জমিয়তে উলেমা-ই হিন্দের সহযোগিতায় আয়োজিত হয়েছিল একটি সাধারণ সভা। এই সভার মাধ্যমে দীঘায় একটি মসজিদ তৈরি করার দাবি জানানো হয়েছে।

   

সংগঠনের দাবি, দীঘায় প্রতি বছর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ ঘুরতে আসেন। কিন্তু নমাজ পড়ার জন্য উপযুক্ত জায়গা না থাকায় তারা সমস্যার মধ্যে পড়েন। একটি মসজিদ থাকলে এই সমস্যার সমাধান করা যাবে বলে সংগঠনের অনেকে মনে করেন। সংগঠনের জেলা সম্পাদক মৌলনা নজরুল ইসলাম সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) কাছে মসজিদ তৈরির জমির জন্য ইতিমধ্যেই আবেদন জানানো হয়েছে।

দীঘায় মসজিদ গড়ার বিষয়ে শংকরপুর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান তানবির আফজল জানিয়েছে, ‘আবেদন লোকজন করতেই পারে। আমাদের যদি জমি দেখতে বলা হয়, তখন আমরা দেখব। জায়গা তো অনেকেই চেয়েছে। রামকৃষ্ণ মিশন থেকে চাওয়া হয়েছ। সরকারি প্রক্রিয়া আছে। আমার কাছে যদি সেই ভাবে প্রক্রিয়া মেনে আসে, তখন সেটা দেখা হবে। সরকার না বললে তো আমি কাউকে জমি দিতে পারি না।’

সম্পর্কিত খবর