বজ্রবিদ্যুৎ সহ শিলাবৃষ্টি! মঙ্গলবার থেকে মুড সুইং আবহাওয়া, দক্ষিণবঙ্গের এই জেলাগুলোয় বিপদ

আবহাওয়ার (Weather) ঘন ঘন মুড সুইংয়ের জেরে নাজেহাল অবস্থা বাংলার মানুষের। তাপমাত্রার ওঠানামা লেগেই রয়েছে। সেইসঙ্গে শীতের ঝোড়ো ব্যাটিং তো রয়েইছেই। এদিকে আজ ফের একবার পারদ নামল শহর কলকাতার। হ্যাঁ এমনই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আবহাওয়া দফতরের সর্বশেষ আপডেট অনুযায়ী, গতকাল রবিবার ছুটির দিন শহরের তাপমাত্রা ছিল ১২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা কিনা স্বাভাবিকের থেকে দু ডিগ্রি কম। কিন্তু আজ সোমবার অর্থাৎ সপ্তাহের প্রথম দিনে আরও জাঁকিয়ে ঠান্ডা অনুভব করলেন বাংলার মানুষজন। যদিও আর বেশিদিন নয়, কারণ আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে আমূল বদলে যাবে বাংলার আবহাওয়ার। আর এমনই পূর্বাভাস জারি করে সকলকে চমকে দিয়েছে হাওয়া অফিস।

   

কনকনে শীতের মাঝেই নতুন  করে ঘূর্ণাবর্ত, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার চোখ রাঙানি। আজ সকাল থেকেই ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে গিয়েছে শহর কলকাতা (Kolkata) সহ দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) একাংশ। এরই পাশাপাশি বৃষ্টির পূর্বাভাস জারি করা হল। মঙ্গলবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলা যেমন বর্ধমান, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, নদীয়া, বীরভূম থেকে শুরু করে মুর্শিদাবাদে হালকা বৃষ্টি ও সেইসঙ্গে মেঘলা আকাশ, কুয়াশা থাকবে।

তবে আপনি যদি ভেবে থাকেন তিলোত্তমা রক্ষা পাবে তাহলে ভুল ভাবছেন। এবার কলকাতা সহ রাজ্যের বেশ কিছু অংশে আগামী বুধবার এবং বৃহস্পতিবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ঘূর্ণাবর্ত ও সম্মিলন অঞ্চলের প্রভাবে ৩১শে জানুয়ারি থেকে ২রা ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময়সীমার মধ্যে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। হতে পারে বিক্ষিপ্ত ভাবে শিলাবৃষ্টি।

weather

অন্যদিকে আজ সকাল থেকেই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বেশ কিছু অংশে তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি ছুঁয়েছে। সকাল থেকে হালকা কুয়াশার দাপটও বজায় রয়েছে।  কুয়াশা থাকলেও কনকনে ঠান্ডা রয়েছে। সকাল সকাল আগুন জ্বালিয়ে গা গরম করতে ব্যস্ত বেশিরভাগ মানুষ।

সম্পর্কিত খবর