১০ হাজার টাকার ব্যবসা থেকে গড়েছেন ৪১৫০ কোটির সাম্রাজ্য! এবার পদ্মশ্রী পাচ্ছেন শশী

কথাতেই আছে, সফল হতে হলে কোনও বয়স বাধা হয়ে দাঁড়ায় না। বা কোনও কিছু করে দেখানোর লক্ষ্য যদি কারোর থাকে সেক্ষেত্রেও টাকা বা বয়স কোনওটাই কিন্তু বিশাল বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায় না। আজ এই আর্টিকেলে এমন একজন মানুষ সম্পর্কে আলোচনা হবে যিনি মাত্র ১০,০০০ টাকা দিয়ে ব্যবসা (Business) শুরু করেছিলেন এক সময়ে। আর আজ তাঁর ব্যবসা বিরাট উঁচু জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে।

আজ এই প্রতিবেদনে কথা হচ্ছে শশী সোনিকে (Shashi Soni) নিয়ে। তিনি দেখিয়ে দিয়েছেন, ব্যবসা করার জন্য অল্প বয়সী হওয়ার দরকার পড়ে না। আপনি জানলে অবাক হবেন, তিনি আজ ৪ হাজার কোটি টাকারও বেশি দামি কোম্পানির মালিক। তিনি এই এম্পায়ারটিকে ১০ হাজার টাকার প্রাথমিক মূলধন দিয়ে বড় করেছেন।

   

২০২৪ সালের পদ্ম পুরস্কার (Padma Shri) প্রাপকদের তালিকায় শশী সোনির নামও রয়েছে। ভারত সরকার (Government Of India) তাঁকে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ১৯৭১ সালে প্রথমবার ব্যবসা শুরু করেন শশী। তিনি ১০,০০০ টাকা প্রাথমিক মূলধন নিয়ে দীপ ট্রান্সপোর্ট শুরু করেছিলেন এবং ১৯৭৫ সাল পর্যন্ত এটি চালিয়েছিলেন। পরে ১৯৭৫ সালে মুম্বাইয়ের মুলুন্দ এলাকায় দীপ মন্দির সিনেমা নামে প্রথম এসি সিনেমা চালু হয়। এই এই ব্যবসাটি চলে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত।

নিজের সাম্রাজ্য তৈরি করতে যথেষ্ট কষ্ট করতে হয়েছে শশীকে। তিনি অক্সিজেন প্রাইভেট লিমিটেড প্রতিষ্ঠা করেছিলেন, যা মহীশূরে খোলা হয়। এরপর এই গ্যাস উত্পাদন কেন্দ্র থেকে ভাল অর্থ পেতে শুরু করেন শশী এবং তাঁর সংগ্রামটি সাফল্যে পরিণত হয়। আস্তে আস্তে ব্যবসা বাড়তে লাগল, কারিগরি ক্ষেত্রেও নেমে পড়েন তিনি।

sashi soni

শশী সোনি ২০০৫ সালে আইজেডএমও লিমিটেড নামে একটি সংস্থা গঠন করেছিলেন, যা মার্কেট সলিউশন সরবরাহ করে। তার কোম্পানি আজ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ এবং এশিয়ায় উচ্চ প্রযুক্তির স্বয়ংচালিত এবং ই-খুচরা বিক্রয় সমাধান সরবরাহ করে। শশী এই সংস্থার চেয়ারপার্সন। তার সংস্থাও বিএসই এবং এনএসইতে তালিকাভুক্ত।

শশী অনেক সামাজিক কাজের সাথেও যুক্ত। তিনি দীপ পাবলিক সার্ভিস কমিটির সদস্যও। এই কমিটি মহিলাদের শিক্ষিত, পেনশন প্রকল্প চালু এবং প্রতিবন্ধীদের জন্য তহবিল সংগ্রহের পাশাপাশি চাকরি সরবরাহে সহায়তা করার জন্য কাজ করে। আইজেডএমও লিমিটেডের বেশ কয়েকটি সহায়ক সংস্থাও রয়েছে। এর মধ্যে Homestar Systems, Inc., izmocars Europe BVBA-র মতো বড় সংস্থাগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

পদ্মশ্রী পুরস্কারের আগে শশী ব্যবসা ও সমাজকল্যাণ ক্ষেত্রে অনেক মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৯০ সালে, তিনি ভারতীয় শিল্পে তার অবদানের জন্য মহিলা গৌরব পুরস্কার পেয়েছিলেন। এর পরে, তিনি অল ইন্ডিয়া ইন্ডাস্ট্রিয়াল গ্যাস ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যাসোসিয়েশনের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যও ছিলেন। এ ছাড়া তিনি কারিগরি উন্নয়ন অধিদপ্তরের সদস্যও ছিলেন।

সম্পর্কিত খবর