চরম বিপদ! আকাশ ছুঁল গমের দাম, বন্ধ বিদ্যুৎও! প্রতিবাদে পাকিস্তানের রাস্তায় লাখ লাখ মানুষ

মুদ্রাস্ফীতির কামড়ে নাজেহাল অবস্থা পাকিস্তানের (Pakistan)। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের উর্ধ্বমুখী দামের কারণে একপ্রকার নাভিশ্বাস উঠে যাচ্ছে দেশের আম জনতার। কবে এসব থেকে মুক্তি মিলবে? উত্তর পাচ্ছেন না কেউই।

এদিকে হু হু করে বাড়ছে গমের দাম। সেইসঙ্গে আরও নানা ইস্যুতে এবার রাস্তায় নামলেন সাধারণ মানুষ। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে বিক্ষোভ দেখালেন সকলে। শুক্রবার গিলগিট-বালতিস্তানে (Gilgit-Baltistan) রাস্তায় নেমে আসলেন সাধারণ জনতা। ভর্তুকিযুক্ত গমের হার বৃদ্ধি এবং ২২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ বিভ্রাটের বিরুদ্ধে গিলগিটে বিক্ষোভ চলে। শুক্রবার বিক্ষোভের জেরে সব জেলায় স্বাভাবিক জনজীবন একপ্রকার নিস্তেজ হয়ে পড়ে।

   

বিক্ষোভ চলাকালীন প্রায় সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায় এবং যান চলাচল ব্যাহত হয়। গিলগিট, স্কার্দু, দিয়ামার, গাইজার, অ্যাস্টোর, শিগার, ঘাঞ্চে, খারমাং, হুনজা এবং শহরের বিভিন্ন এলাকায় দোকানপাট, বাজার, রেস্তোরাঁ এবং ব্যবসা কেন্দ্রগুলি বন্ধ রয়েছে। এ সময় রাস্তায় জ্যাম দেখা দেয়। যাতায়াত স্বাভাবিক না হওয়ায় সরকারি-বেসরকারি অফিস ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভিড় ছিল খুবই কম। দোকানপাট বন্ধ থাকায় নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে হিমশিম খেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষের।

ব্যবসায়ী, পরিবহন ও হোটেল মালিকদের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠনগুলোর পরামর্শে আওয়ামী অ্যাকশন কমিটি (এএসি) এ ধর্মঘটের ডাক দেয়। ভর্তুকিযুক্ত গমের দাম বাড়ানোর সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এক মাসেরও বেশি সময় ধরে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভে বক্তারা জিবি সরকারের ভর্তুকিযুক্ত গমের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্তকে মুখ্যমন্ত্রীর ব্যর্থতা বলে নিন্দা জানান। দাবি মানা না হলে কারাকোরাম মহাসড়ক বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন তারা। শুক্রবার জুমার নামাজের পর টাঙ্গির, অ্যাস্টর, খারমাং, স্কার্দু, শিগার, ঘাঞ্চে, হুনজা, নগর ও ঘিজিরেও বিক্ষোভ ও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

pakistan protest

সংগঠনের প্রধান সংগঠক এহসান আলী বলেন, ‘গত ৭০ বছর ধরে জিবির বাসিন্দারা তাদের মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত।‘ আক্ষেপের সুরে তিনি বলেন, বর্তমানে সরকারি তহবিল থেকে বছরে কোটি কোটি টাকা খরচ করেও জিবির মানুষ ২২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ বিভ্রাটের সম্মুখীন হচ্ছেন। এদিকে, জিবি গভর্নর সৈয়দ মেহদি শাহ শুক্রবার ইসলামাবাদে রাষ্ট্রপতি ড. আরিফ আলভির সাথে সাক্ষাত করেছেন এবং গমের ভর্তুকিসহ এই অঞ্চলের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছেন।

সম্পর্কিত খবর