বন্দে ভারতে পচা খাবার! অভিযোগ পেয়ে যা অ্যাকশন নিল IRCTC, শুনে দিল খুশ হয়ে যাবে

বন্দে ভারত এক্সপ্রেস (Vande Bharat Express) ট্রেনকে এনে মানুষের প্রত্যাশা দিনদিন বাড়িয়েই চলেছে ভারতীয় রেল (Indian Railways)। এই বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেন ভারতের প্রথম প্রিমিয়াম এবং সেমি হাইস্পিড ট্রেন (High-speed rail)। ইতিমধ্যে এই ট্রেন দেশের বহু প্রান্তে ছুটে চলেছে। কিন্তু এরকম প্রিমিয়াম ট্রেনের খাবার পরিষেবা নিয়ে উঠল ভয়াবহ অভিযোগ।

Dirty Food in Vande Bharat Express

যে কারণে এখন অনেকেই এরকম প্রিমিয়াম ট্রেনে ওঠার আগে দশবার ভাবতে শুরু করেছেন। আসলে প্রিমিয়াম ট্রেন বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে যাত্রীদের নিম্নমানের খাবার পরিবেশনের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এতে যাত্রীরা খারাপ খাবার দেওয়ার অভিযোগ করছেন। এদিকে এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর বড় পদক্ষেপ নিয়েছে ইন্ডিয়ান রেলওয়ে ক্যাটারিং অ্যান্ড ট্যুরিজম কর্পোরেশন (Indian Railway Catering and Tourism Corporation)।

বন্দে ভারতে খারাপ খাবার দেওয়ায় পদক্ষেপ IRCTC-র

   

জানা যাচ্ছে, IRCTC ক্ষুব্ধ হয়ে পরিষেবা সরবরাহকারীকে ২৫,০০০০ টাকা জরিমানা করেছে। এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, যাত্রীরা কর্মীদের খাবার ফেরত নিতে বলছেন আধিকারিকদের। এদিকে কর্মীদেরও প্লেটগুলিকে তুলে নিতে দেখা যাচ্ছে।  প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে আকাশ কেশরী নামে এক ব্যক্তি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম  টুইটারে এই ভিডিওটি পোস্ট করেছিলেন। আর এরপরেই সকলের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

টাকা ফেরত চান যাত্রী

আকাশ রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবকে ট্যাগ করে তাঁর পোস্টে লিখেছেন, ‘স্যার, আমি ২২৪১৬ নম্বর ট্রেনে দিল্লি থেকে বেনারস যাচ্ছিলাম। এই ট্রেনে আমাদের যে খাবার পরিবেশন করা হয়েছিল সেটা থেকে খুবই খারাপ গন্ধ বেরোচ্ছিল। এছাড়া খাবারের গুণগত মানও খুব খারাপ ছিল। দয়া করে আমার সব টাকা ফেরত দিয়ে দিন। কিছু লোক বন্দে ভারত ব্র্যান্ডের নামকে কলঙ্কিত করছে।‘

এদিকে আইআরসিটিসিও যাত্রীদের অভিযোগের পাল্টা জবাব দিয়েছে এবং ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেছে। আইআরসিটিসির তরফে বলা হয়েছে, ‘আমরা আপনার অসন্তোষজনক অভিজ্ঞতার জন্য গভীরভাবে ক্ষমা চাইছি। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নেওয়া হয়েছে। পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার উপর যথাযথ জরিমানা আরোপ করা হয়েছে। এ ছাড়া দায়িত্বশীল সার্ভিস প্রোভাইডার কর্মচারীদের অপসারণ করা হয়েছে’।

রেলের পরিষেবা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

যদিও এহেন ঘটনার পর থেকে রেলের বিরুদ্ধে অনেকেই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন। একপ্রকার ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন নেটিজেন থেকে শুরু করে নিত্যরেল যাত্রীরা। কেউ কেউ প্রশ্ন তুলেছেন, কেন রেলের দায়িত্ব নেই। এছাড়া মানুষ খাবারের মান নিয়ে অনেক প্রশ্ন তুলেছে।

সম্পর্কিত খবর