আপনার টাকার কী হবে? RBI-র নিষেধাজ্ঞার পর এবার মুখ খুলল Paytm কোম্পানি

অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ Paytm একটি বড় ধাক্কা খেয়েছে এবং ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক (Reserve Bank of India) এই রাম ধাক্কাটা দিয়েছে। RBI পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্ক’কে (Paytm Payments Bank) ঋণ লেনদেন এবং যে কোনও ধরণের আমানত নেওয়া নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ২৯ ফেব্রুয়ারির পর পেটিএম আর ব্যাঙ্কিং সুবিধা দিতে পারবে না।

আরবিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে, নিয়ম না মানার জন্য পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এদিকে আরবিআই-এর এহেন সিদ্ধান্তের কারণে মাথায় হাত পড়েছে লক্ষ লক্ষ ব্যবহারকারীর। সকলের একটাই প্রশ্ন, তাঁদের জমানো টাকার এবার কী হবে? এদিকে এবার এই বিষয়ে মুখ খুলল খোদ কোম্পানি।

   

সামাজিক মাধ্যমে Paytm বলেছে,সহযোগী ব্যাঙ্কের ওপর রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নিষেধাজ্ঞা Paytm Money-র কাজকর্মে কোনও প্রভাব ফেলবে না। এখানে আপনাদের টাকা নিরাপদ। আমরা আপনাকে আশ্বস্ত করে বলতে পারি, আপনি এই প্লাটফর্ম থেকে ইক্যুইটি, মিউচুয়াল ফান্ড,এনপিএসে নিরাপদে বিনিয়োগ করতে পারেন। এখানে কাজগুলি সবই সিকিউরিটি এক্সচেঞ্জ বোর্ড অফ ইন্ডিয়ার বা SEBI-র তত্ত্বাবধানে হয়ে থাকে।

১১ মার্চ ২০২২ তারিখে আসা যাক। এদিন পেটিএমকে নোটিস পাঠায় RBI। জানানো হয়, পেমেন্ট ব্যাঙ্ক নতুন গ্রাহক যোগ করতে পারে না। এর পাশাপাশি, আরবিআই আরও বলেছে যে আপনার পেমেন্ট ব্যাঙ্ক তার সমস্ত সিস্টেম থেকে একটি আইটি টিম অডিট করবে। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত নতুন গ্রাহক যুক্ত করা উচিত নয়।

paytm

এখন পেটিএম একটি পেমেন্ট গেটওয়ের পাশাপাশি একটি ব্যাংকিং প্ল্যাটফর্ম। সুতরাং তাকে সমস্ত নোটিশ এবং আরবিআইয়ের সমস্ত আদেশ গ্রহণ করতে হবে। এখন যখন পেটিএমের এই সিস্টেম অডিট করা হয়, তখন রিপোর্ট রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কাছে যায়। ৩১ জানুয়ারি জারি করা নোটিশের দ্বিতীয় দফায় আরবিআই দাবি করেছে যে অডিট রিপোর্টে পেটিএমের সিস্টেমে বেশ কয়েকটি ত্রুটি ধরা পড়েছে এবং পেমেন্ট ব্যাঙ্ক আরবিআইয়ের নিয়ম লঙ্ঘন করেছে বলেও প্রকাশ করেছে।

এর পরে, আরবিআই 1949 সালের ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্টের ধারা 35A ব্যবহার করে। এই অনুচ্ছেদ অনুসারে, আরবিআই ব্যাঙ্কিং পরিষেবাগুলিকে নির্দেশ দেওয়ার অধিকার সংরক্ষণ করে। এই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে আরবিআই পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্ককে একটি নতুন অর্ডার জারি করেছে।

সম্পর্কিত খবর