লটারিতে এক কোটি টাকা জিততেই বউ, বাচ্চা ফেলে চম্পট ব্যক্তি! এলাকায় হুলস্থূল কাণ্ড

লটারি (Lottery) জিনিসটা অনেকের কাছে একটি নেশার মতন। অনেকেই আছেন যারা প্রত্যেকদিন ভাগ্য ফেরানো তাগিদে লটারির টিকিট (Lottery Ticket) কাটেন। অনেকেই আছেন যারা অল্প সময়ের মধ্যে বেশি টাকা উপার্জন করতে চান। সে ক্ষেত্রে বহু মানুষ লটারির টিকিট কাটেন এবং বড়লোক হওয়ার চেষ্টা করেন।

যদি কারো ভাগ্য ভালো থাকে তাহলে একবারের চেষ্টাতেই ব্যক্তি লটারি জিতে টাকা উপার্জন করে ফেলেন। আবার এও নজির রয়েছে যে বছর পর বছর লটারি টিকিট কেটেও কপাল ফেরে না অনেকের সেক্ষেত্রে হতাশা গ্রাস করে। তবে এই লটারি টিকিট রাতারাতি যে মাছ ব্যবসায়ীর ভাগ্য বদলে দেবে তা কেই বা ভাবতে পেরেছিল। এমনকি লটারির যে তার টাকা নিয়ে কী করবেন সেই নিয়ে ভাবতে ভাবতে একপ্রকার অস্থির হয়ে এলাকা ছাড়া অবধি হয়ে গিয়েছেন মন্দিরবাজারের বাসিন্দা।

   

হ্যাঁ শুনতে অবাক লাগলেও এমনই ঘটনা ঘটেছে পেশায় মাছ ব্যবসায়ী সুবল হালদারের। দীর্ঘ বিগত ১২ বছর ধরে ভাগ্য ফেরানোর আশায় সুবল হালদার লটারির টিকিট কেটেই যাচ্ছিলেন, কিন্তু কপাল যেন আর খোলে না। তবে সম্প্রতি তিনি লটারি টিকিট কাটেন এবং কড়কড়ে এক কোটি টাকা জিতে যান। এই ঘটনায় হতবাক সকলে। কেই বা ভাবতে পেরেছিল যে এই লটারির টিকিট একদিন মন্দির বাজারের আঁচনার বাসিন্দা সুবল হালদারের জীবন এক প্রকার নাড়িয়ে রেখে দেবে।

১ কোটি টাকা পেয়ে সেই মাছ ব্যবসা আরও বড় করতে চান তিনি। যদিও টাকা পাওয়ার পর হঠাৎ তিনি এলাকায় ছিলেন না। স্বাভাবিকভাবেই এত পরিমাণ টাকা পাওয়ার জেরে সুবল হালদারকে দেখতে তার বাড়ির সামনে ভিড় জমাতে থাকেন সাধারণ মানুষ। আর এই ভয়ে রীতিমতো তিনি বাড়ি ছাড়া হন। তবে এত টাকা পাওয়ায় খুশি সুবল হালদার সহ তার গোটা পরিবার।

সম্পর্কিত খবর