লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের ৫০০-১০০ নয়! এবার মহিলাদের প্রতিদিন ৩০০ টাকা দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

মহিলাদের (Women) শক্তিশালী করতে একের পর এক রাজ্য সরকার (State Government) থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় সরকার (Central Government) কোনও না কোনও পদক্ষেপ নিয়েই চলেছে। সবথেকে বড় কথা, বাংলায় (West Bengal) মহিলাদের ক্ষমতায়নে মাসে মাসে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার (Lakshmir Bhandar) প্রকল্পের মাধ্যমে সকলের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ৫০০, ১০০০ টাকা করে দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার (Government Of West Bengal)।

যদিও রাজ্য সরকার এবার এমন এক সিদ্ধান্ত নিয়েছে যার পরে মহিলাদের জীবন একপ্রকার আমূল বদলে যাবে। এবার শুধুমাত্র ৫০০ বা ১০০০ টাকা করে নয়, মহিলাদের অ্যাকাউন্টে ঢুকতে চলেছে ৯০০০ টাকা অবধি। কী শুনে চমকে গেলেন তো? আসলে রাজ্য সরকারের তরফে একটি বিশেষ প্রকল্প আনা হয়েছে, আর এই প্রকল্পের সুবিধা শুধুমাত্র মেয়েরাই নিতে পারবেন।

   

সেবা সখী প্রকল্প (Seba Sakhi Prakalpa) পশ্চিমবঙ্গ সরকারের একটি নতুন প্রকল্প। সেবা সখী প্রকল্পের আওতায় পশ্চিমবঙ্গ সরকার মহিলাদের বয়স্ক বা শয্যাশায়ী অন্য কোনও ব্যক্তির যত্ন নেওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ দেবে। শুধু তাই নয়, ট্রেনিং-এর সময়ে টাকাও দেওয়া হবে মহিলাদের বলে জানানো হয়েছে। মহিলাদের আরও বেশি কর্মসংস্থান প্রদান এবং তাদের ক্ষমতায়নের জন্য এই প্রকল্পটি চালু করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ সরকার পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি জেলার প্রতিটি ব্লক থেকে ২০-৪০ জন মহিলা নিয়োগ করবে। তারপরে পশ্চিমবঙ্গ সরকার গ্রামীণ জীবিকা মিশন প্রকল্পের অধীনে তাদের প্রশিক্ষণ দেবে। ‘সেবা সখী’ প্রকল্পের আওতায় নির্বাচিত মহিলাদের মৌলিক চিকিৎসা সেবা যেমন কীভাবে ড্রেসিং করতে হয়, ব্যান্ডেজ করতে হয়, এছাড়া রক্তচাপ পরিমাপ, ডায়াবেটিসের মতো সাধারণ রোগের পরিচর্যা ও চিকিৎসা ইত্যাদি বিষয়ে সাধারণ তথ্য দিয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

money save

সেবা সখী প্রকল্পের আওতায়, বয়স্ক ব্যক্তির যত্ন নেওয়ার জন্য নিযুক্ত মহিলারা শহুরে অঞ্চলে নিযুক্ত হলে প্রতিদিন ৩০০ টাকা বা গ্রামাঞ্চলে নিযুক্ত হলে প্রতিদিন ২৫৫ টাকা পাবেন। পশ্চিমবঙ্গ সরকার শীঘ্রই এই প্রকল্পের একটি পাইলট প্রকল্প শুরু করবে। সুতরাং সেবা সখী প্রকল্পের অধীনে আবেদন করার পদ্ধতি সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত কোনও বিস্তারিত তথ্য সরবরাহ করা হয়নি।

আশা করা হচ্ছে যে পাইলট প্রকল্পটি শেষ হওয়ার পরে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করার জন্য অফলাইন এবং অনলাইন উভয় পদ্ধতিই ঘোষণা করা হবে। বারুইপুর, রাজারহাট, পাঁশকুড়া ও আমতা এই চারটি ব্লকে এই পাইলট প্রকল্প পরিচালিত হবে। প্রতিটি ব্লক থেকে ২০ জন মহিলাকে বাছাই করে কলকাতার ইনস্টিটিউট অফ জেরোন্টোলজিতে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। মহিলারা প্রতি মাসে ৭৬৫০ টাকা এবং শহরাঞ্চলে দৈনিক ৩০০ টাকা অর্থাৎ প্রতি মাসে ৯০০০ টাকা করে ভাতা পাবেন। একটি সফল পাইলট প্রকল্পের পরে, সেবা সখী প্রকল্পের অধীনে আরও মহিলাদের নিয়োগ এবং প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

 

সম্পর্কিত খবর