হু হু করে বাড়বে TRP, মোক্ষম এপিসোড আনছে জি বাংলার এই মেগা! পাত্তা পাবেনা স্টার জলসা

টিআরপি (Target rating point) বাড়াতে কিছু না কিছু করেই চলেছে সিরিয়ালের ডিরেক্টররা। এদিকে যত সময় এগোচ্ছে ততই জনপ্রিয়তা বাড়ছে বাংলা সিরিওয়ালগুলির। সে জি বাংলা (Zee Bangla) হোক বা স্টার জলসা (Star Jalsha)…এখন শুধুই সিরিয়ালের রমরমা। কিছু সিরিয়াল বন্ধ হচ্ছে তো কিছু সিরিয়াল আবার চালু হচ্ছে।

২০২৩ সালে বেশ কিছু সিরিয়াল TRP-র অভাবে বন্ধ হয়ে গিয়েছে। আগাগোড়াই সিরিয়ালগুলির ভাগ্য নির্ধারণ হয় টিআরপি দেখে। তবে এবার এই টিআরপি টানতে বড় কিছু দেখা যাবে জি বাংলার ‘কার কাছে কই মনের কথা’ (Kar Kachhe Koi Moner Kotha) সিরিয়ালে। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে সিরিয়ালটির প্রোমো, যা দেখে সকলের চোখ একপ্রকার ছানাবড়া হয়ে গিয়েছে।

   

শ্বশুরবাড়িতে একটি মেয়ে কীভাবে লড়াই করে বেঁচে আছে সেটা নিয়ে গল্প। এই সিরিয়ালে যত সময় এগোচ্ছে ততই যেন নতুন নতুন ট্যুইস্ট আসছে। সম্প্রতি সিরিয়ালে ডিভোর্স ট্র্যাক দেখাচ্ছিল। দেখা যাচ্ছিল কীভাবে শিমূল ও পলাশের বিবাহ বিচ্ছেদ হচ্ছে।

তবে এখানেই শেষ নয়, এবারের প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে, মুখ দিয়ে গাজা ওঠা অবস্থায় বিছানায় পড়ে রয়েছে পরাগ। ঐ অবস্থায় দেখে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে দেয় প্রতীক্ষা আর পলাশ। আরো দেখা যাচ্ছে সোফায় অসুস্থ অবস্থায় শুয়ে থাকা পরাগকে দেখছেন একজন চিকিৎসক। আর হাতে বিষের কৌটো নিয়ে প্রতীক্ষা শিমূললের দিকে আঙ্গুল তুলে দাবি করছে পরাগকে নাকি বিষ খাইয়ে প্রাণে মারার চেষ্টা করেছে সে।

সত্যিই কি তাই? অন্যদিকে এই দৃশ্য দেখে বৌমা ভক্ত মধুবালা প্রতিবাদ করে বলে ওঠেন ‘আমার বউমা আর যাই করুক কাউকে খুন করতে যাবেনা’।  ঠিক তখনই সেখানে পুলিশ নিয়ে হাজির হয় পলাশ।  আর বলে ‘কে কি করেছে তা প্রমাণ হয়ে গিয়েছে।’ আর তখন পুলিশও বলে ওঠে ‘আমরা মিসেস শিমুল ব্যানার্জীকে গ্রেপ্তার করছি।’ তখন  শিমুল মধুবালাকে কথা দিয়ে বলে ‘আমি তোমাকে কথা দিচ্ছি মা, হয় আমি প্রমাণ করব আমি নির্দোষ,আর তা না হলে আর কোনদিন এই বাড়িতে ফিরে আসবো না।’

সম্পর্কিত খবর