দু’দিনে খেল শুরু! দক্ষিণবঙ্গে এতটা নামবে পারদ, শীত নিয়ে ভয়ঙ্কর অ্যালার্ট আবহাওয়া দফতররে

অক্ষরে অক্ষরে যেন মিলে গেল আলিপুর আবহাওয়া দফতরের। আর কোনও ঝঞ্ঝা বা ঘূর্ণাবর্ত নয়, এবার বেশ খানিকটা পারদ নামল কলকাতা (Kolkata) শহর সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গে (South Bengal)। বিগত বহু কয়েকদিন ধরেই ঠান্ডার (Winter) প্রহর গুনছিলেন শীতপ্রেমীরা। কিন্তু শীত যেন ধরা দিয়েও ধরা দিচ্ছিল না।

বিগত লম্বা বেশ কিছু সময় ধরে একের পর এক ঘূর্ণাবর্ত, বৃষ্টি, পশ্চিমী ঝঞ্ঝা….সব মিলিয়ে রাজ্যের আবহাওয়ার একপ্রকার দফারফা হয়ে গিয়েছে। আর এসবের ঠেলায় পরে বাংলায় ভালো করে শীতই পড়তে পারেনি। ফলে এতদিন স্বাভাবিকভাবেই সকলের মন খারাপ ছিল। তবে এবার মনে হচ্ছে সেই শীত নিয়ে সকলের খরা কাটতে চলেছে।

দক্ষিণবঙ্গে ভয়ঙ্কর ঠান্ডা

   

কারণ আজ শুক্রবার সকাল থেকে বেশ ঠান্ডার অনুভূতি টের পাচ্ছেন বাংলার মানুষ। সকলেই বলতে শুরু করেছেন যে এবার কি তবে বাংলায় শীত পাকাপাকিভাবে এসে গেল? এই প্রসঙ্গে এবার বড় তথ্য দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। মৌসম ভবন জানাচ্ছে, পৌষ সংক্রান্তির আগেই শীতের স্পেল শুরু হয়ে যাবে। আগামী দু-তিন দিনের মধ্যেই রাজ্যে অবাধ উত্তুরে হাওয়া ঢুকবে। ইতিমধ্যে কিছুটা হলেও ঠান্ডা আবহাওয়া রাজ্যে ঢুকতে শুরু করেছে। যদিও এই হাওয়ার মাত্রা আগামী দিনে পাল্লা দিয়ে বাড়বে।

আরও ৪ ডিগ্রি কমবে তাপমাত্রা

সেইসঙ্গে তাপমাত্রাও কমবে। ফলে কনকনে শীতের অনুভূতি বজায় থাকবে। আজ শহর কলকাতার পারদ ১৫ ডিগ্রিতে নেমে গিয়েছে। যদিও এই পারদ আগামী দিনে আরও ৪ ডিগ্রি কমবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন হাওয়া অফিসের বিজ্ঞানীরা। পশ্চিমের জেলাগুলিতে ৪ ডিগ্রি পর্যন্ত নামতে পারে তাপমাত্রা।

weather cold

এদিকে বাংলার বিভিন্ন জেলায় হলুদ সতর্কতা অবধি জারি করা হয়েছে। পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম, মুর্শিদাবাদ ও নদিয়ায় ঘন কুয়াশা নিয়ে তীব্র সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এদিকে ঠান্ডার পাশাপাশি মালদা, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারে ঘন কুয়াশার সতর্কতা জারি রয়েছে।

সম্পর্কিত খবর