বৃষ্টির সাথে সাথে দক্ষিণবঙ্গে আবহাওয়ার আরেকটি মার! বড়সড় অ্যালার্ট জারি করল হাওয়া অফিস

সকাল থেকেই আকাশের মুখ ভার। কালো মেঘে মুখ ঢেকে গিয়েছে বাংলার (West Bengal) আকাশ। মনে হচ্ছে যেন যে কোনো মুহূর্তে বৃষ্টি নামতে পারে। সেইসঙ্গে আজ বাংলায় ঘন কুয়াশার সতর্কতা অবধি জারি করা হয়েছে। তাপমাত্রাও বেশ খানিকটা বেড়ে গিয়েছে।

হাওয়া অফিসের তরফে আজ বৃহস্পতিবার ভয়ংকর কুয়াশা সতর্কতা কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) বিস্তীর্ণ অঞ্চলে। আজ থেকেই দৃশ্যমানতা কমতে শুরু করবে এবং ভোরের দিকে দৃশ্যমানতা প্রায় থাকবে না বললেই চলে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, আজ মোটের উপর বাংলার সব জেলাতেই ঝেঁপে বৃষ্টি নামবে। বাদ যাবে না শহর কলকাতাও।

   

বঙ্গোপসাগর থেকে জলীয় বাষ্পের অনুপ্রবেশের ফলে আগামী ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন অংশে বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী কয়েকদিন পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূমের মতো জেলাগুলি হবে। একইভাবে ৩১ জানুয়ারি থেকে ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কলকাতাতেও হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, আগামী দু-একদিন শহরে দু-এক জায়গায় গভীর থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে। আবহাওয়া বিজ্ঞানীদের আশা, ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে আবহাওয়া এমনই বজায় থাকবে। আগামী ৩ তারিখ কেবলমাত্র দুই ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া ও কলকাতাতে হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। বাকি সব জেলাগুলিতে মূলত শুষ্ক আবহাওয়া থাকবে। বৃহস্পতিবার ফের চড়়ল পারদ। আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.৩, যা স্বাভাবিকের থেকে ৬ ডিগ্রি বেশি।

rainfall wb

এদিকে দক্ষিণবঙ্গের মতো দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং-সহ উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও ১ ও ২ ফেব্রুয়ারি হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আবহাওয়া বিজ্ঞানীদের মতে, বৃষ্টিপাতের ফলে উদ্যানপালন এবং জমিতে থাকা ফসল ও শাকসবজির ক্ষতি হতে পারে। ফলে বাড়তে পারে দামও।

সম্পর্কিত খবর