তেড়ে আসছে চার চারটি ঘূর্ণাবর্ত, ২৫০ কিমি বেগে ঝড়! তোলপাড় দক্ষিণবঙ্গে! অ্যালার্ট IMD-র

ঠান্ডায় (Winter) একদম জুবুথুবু বাংলা (West Bengal)। বিগত ৩ দিন ধরে আকাশের মুখ ভার। এমনকি বুধবার রাত থেকেই দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) জেলায় জেলায় বৃষ্টি শুরু হয়েছে। তবে এখানেই কিন্তু শেষ না, আবহাওয়া নিয়ে আরও ভয়ঙ্কর আশঙ্কা প্রকাশ করল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। যা শুনে আপনারও মন খারাপ হয়ে যেতে পারে বৈকি।

আইএমডির (India Meteorological Department) পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী চার দিন উত্তর ভারতে ঘন থেকে অতি ঘন কুয়াশা এবং তীব্র শৈত্যপ্রবাহের পরিস্থিতি বজায় থাকবে। আগামী ৪ দিন উত্তর-পশ্চিম ভারতের সমভূমিতে তীব্র শৈত্যপ্রবাহের পরিস্থিতি অব্যাহত থাকতে পারে। শুধু তাই নয়, এবার চারটি ঘূর্ণাবর্ত একসঙ্গে কপালে নাচছে ভারতের। আর এর সরাসরি প্রভাব পড়বে বাংলাতেও।

   

একপ্রকার ঠান্ডা আবহাওয়া, ঝোড়ো হাওয়া, বজ্রবিদ্যুৎ (thunderstorm) সহ বৃষ্টি সবই হবে একসঙ্গে বলে পূর্বাভাস জারি করেছেন IMD-র বিজ্ঞানীরা। আগামী কয়েকদিনে বাংলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির সবথেকে বেশি সম্ভাবনা রয়েছে দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, পূর্ব বর্ধমান ও নদিয়ায়।  ইতিমধ্যে বেশ কিছু জায়গায় বৃষ্টি অবধি হচ্ছে।

দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও (North Bengal) হু হু করে নামছে পারদ। তুষারপাত ও শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে জায়গায় জায়গায়। যদিও এবার এক ধাক্কায় ৪টি ঘূর্ণাবর্ত চোখ রাঙাচ্ছে দেশজুড়ে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, বর্তমানে উত্তরপ্রদেশ এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় ১.৫ কিলোমিটার থেকে ৩.১ কিলোমিটার পর্যন্ত ঘূর্ণাবর্ত বিস্তৃত রয়েছে৷

weather bengal

এদিকে উত্তর -পশ্চিম রাজস্থান এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকাতেও বিস্তৃত রয়েছে সাইক্লোনিক সার্কুলেশন৷ এছাড়া বাংলাদেশের ওপর সাইক্লোনিক সার্কুলেশন বা ঘূর্ণাবর্ত সমুদ্রতল থেকে ৩.১ কিলোমিটার ওপর পর্যন্ত বিস্তৃত হয়ে রয়েছে৷ এমনকি মলদ্বীপের কাছাকাছিও তৈরি হয়েছে আরও একটি সাইক্লোনিক সার্কুলেশন৷ যে কারণে আমূল বদলে যাবে বাংলা সহ গোটা ভারতের আবহাওয়া।

এই ঘূর্ণাবর্তের পাশাপাশি ব্যাপক হাওয়া চলবে সর্বত্র। আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন,  ১৪০-১৬০ নট প্রতি ঘণ্টা গতিতে সমুদ্রতল থেকে ১২.৫ কিমি ওপর দিয়ে উত্তর ভারতের সমতলের ওপর দিয়ে এই  শীতল হাওয়া বয়ে যাবে৷ এদিকে আগামী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতা শহরে তাপমাত্রা থাকবে ১৬ থেকে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে বলে খবর।

সম্পর্কিত খবর