কম খরচে বেশি লাভ! এই ৫টি ঔষধি গাছ চাষ আপনাকে দেবে কোটি টাকা আয়ের সুযোগ

ভারতের কৃষকরা এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি সচেতন হচ্ছেন। এ কারণেই ঐতিহ্যবাহী ফসল বাদ দিয়ে লাভজনক ফসলের দিকে ঝুঁকছেন তারা। তবে এখনও অনেক কৃষক আছেন যারা তথ্যের অভাবে নতুন ফসল চাষ করতে পারছেন না।

নতুন ফসলের মধ্যে কৃষকদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ঔষধি গাছের চাষ হয়েছে। এই গাছগুলির বিশেষত্ব হল ওষুধ তৈরির পাশাপাশি আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া কম খরচে এসব ঔষধি ফসলের ভালো দাম পাওয়া যায়। দেশ ও বিশ্বে তাদের চাহিদাও ব্যাপক। এ কারণে চাষিরা খুব দ্রুত এসব গাছ চাষের প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে।

অশ্বগন্ধা চাষ
এটি একটি গুল্ম জাতীয় উদ্ভিদ যার ফল, বীজ এবং বাকল অনেক ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। এর মূলের গন্ধ ঘোড়ার মতো, তাই একে অশ্বগন্ধা বলা হয়। এর ব্যবহারে মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

লেমনগ্রাস চাষ
সাধারণ ভাষায় একে লেমন গ্রাস বলে। প্রাণীরা এই ফসল খেতে পছন্দ করে না। এর প্রতিস্থাপনের পর আগাছা নিড়ানোর প্রয়োজন হয় শুধুমাত্র একবার, অন্যদিকে সেচও বছরে ৪ থেকে ৫ বার করতে হয়। একবার ফসল বপনের পর এই চাষ থেকে ৪-৫ বছর লাভ পাওয়া যায়।

অ্যানাসাইক্লাস পাইরেথ্রাম চাষ
আয়ুর্বেদ ওষুধ তৈরিতে আকরকরা ডালপালা ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। এর বীজ, ডালের চাহিদা সব সময়ই থাকে। এমতাবস্থায় বাজারে এর এক কেজি কাঠ বিক্রি হয় প্রায় ৩০০-৪০০ টাকায়।

সজনে চাষ
সজনে সবজি এবং ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলেই এর চাষ করা যায়। একবার এর চারা রোপণ করলে বহু বছর ধরে লাভ পাওয়া যায়।

শতভরি চাষ
শতভরির চাষ থেকে কৃষকরা প্রচুর আয় করতে পারে। এক একরে শতভরি চাষ করে ৫ থেকে ৬ লাখ টাকা আয় করা যায়। এর ডালপালা এবং পাতা অনেক ওষুধ তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button