দক্ষিণবঙ্গে কবে ঢুকবে বর্ষা, সাফ জানিয়ে দিল আবহাওয়া দপ্তর, এবার বৃষ্টিতে ভিজবে পুরো বাংলা

প্রচন্ড উত্তাপ এবং তারই সাথে বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ বাড়ায় গরমের চোটে প্রাণ যায় যায় অবস্থা। পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) মানুষ, বিশেষ করে দক্ষিণবঙ্গের মানুষ এখন চাতক পাখির মত আকাশের দিকে চেয়ে রয়েছে বৃষ্টির আশায়। কিন্তু মেঘের দেখা তো দুর সূর্যদেবের প্রখর ত্বেজের ফলে বাড়ি থেকে বেরোনো হয়েছে দুষ্কর। এরই মধ্যে আবহাওয়া দফতর সূত্রে বর্ষার আভাস দেওয়া হলো।

এদিন আবহাওয়া দপ্তরের রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে যে, আরও বেশ কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে বর্ষা আসতে। এতদমধ্যে গরমও আরো বাড়বে, আর মাঝেমধ্যে ছোটখাটো বৃষ্টিপাত হলেও খুব বেশি বৃষ্টি হবেনা কোথাওই। তবে আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের নিয়ে চলতি মাসের ১০ জুনের আগে আর বৃষ্টি হচ্ছেনা। আর এই রিপোর্ট দেখেই চিন্তার ভাঁজ দক্ষিণবঙ্গের মানুষের কপালে।

delhi rain waterlogging 982d90fc e2b0 11ea aae4 2b178f7f5029

একে গরমে রক্ষা নেই, এখন আবার তার দোসর হয়েছে আর্দ্রতা। দুইয়ে মিলে প্রচণ্ড অস্বস্তি চলছে সারা রাজ্যে। বাড়িতে বসে থাকলেও মিলছে না রেহাই। আর বাড়ির থেকে এক পা বেরোলেই ঘেমে নেয়ে একশেষ অবস্থা। কিন্তু আবহাওয়া দফতরের মতে এই পরিস্থিতির পরিবর্তন হবে ১০ জুনের পর। ওইসময় বর্ষার আসার হালকা সম্ভাবনা রয়েছে। এই প্রসঙ্গে আলিপুর আবহাওয়া অফিসের এক কর্মকর্তা বলেন যে,“ দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢোকার সাথে সাথেই যে কলকাতা ও তার আসপাশের অঞ্চলে বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে এমনটা মোটেই নয়। ভারী বর্ষণের জন্য কলকাতাতে আরও অন্তত ৪-৫ দিন অপেক্ষা করতে হবে।”

প্রসঙ্গত লেটেস্ট রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে যে, আজ এবং আগামীকাল জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, দার্জিলিং, কালিম্পং এবং কোচবিহারে হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এবং একই সাথে দক্ষিণবঙ্গের ঝাড়গ্রাম ,পশ্চিম বর্ধমান,পুরুলিয়া এবং পশ্চিম মেদিনীপুরেও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button