বৃষ্টি থামতেই হু হু করে কাঁপবে দক্ষিণবঙ্গ, শীত নিয়ে বড় আপডেট দিল আবহাওয়া দপ্তর

দফায় দফায় শুরু হয়েছে বৃষ্টি। একদিকে যখন বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড় মিগজাউমের দাপটে জেরবার হয়ে গিয়েছে তামিলনাড়ু থেকে শুরু করে অন্ধ্রপ্রদেশ, ঠিক তখনই এই ঘূর্ণিঝড়ের বেশ খানিকটা প্রভাব বাংলায় পড়ল।

rain

   

ঘূর্ণিঝড়-এর (Cyclone) প্রভাবে মঙ্গলবার বিকেল থেকে কলকাতা (Kolkata) ও দক্ষিণবঙ্গের (South Bengal) জেলায় জেলায় বৃষ্টি হচ্ছে। সেইসঙ্গে কালো মেঘে ঢেকে রয়েছে গোটা আকাশ। শুধু তাই নয়, আজ সকাল থেকে কলকাতা শহর সহ দক্ষিণবঙ্গের একের পর এক জেলা আবহাওয়ার এহেন ব্যাপক রদবদলের সাক্ষী থেকেছে। হচ্ছে অঝোরে বৃষ্টি। দুপুর হয়ে গেলেও বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে।

কখনও হালকা তো আবার কখনও ঝেঁপে বৃষ্টি হচ্ছে জায়গায় জায়গায়। এদিকে এহেন বৃষ্টির কারণে আচমকা ঝপ করে কমে গিয়েছে রাজ্যের তাপমাত্রা। কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, পশ্চিম বর্ধমান, উত্তর দিনাজপুর, মালদা, বীরভূমে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হচ্ছে এবং বিকেলেও এই বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে। আজ থেকে ফের নতুন করে সকলের গায়ে সোয়েটার, শাল চোখে পড়ছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের মতে, শহরের উপর কালো মেঘের আচ্ছাদন আপাতত থাকবে। সেইসঙ্গে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের কাছাকাছি বা কিছুটা নিম্নমুখী হবে।

হাওয়া অফিসের বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, আগামী ২৪ ঘণ্টায় আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলেও থাকতে পারে। হালকা বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে। সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যথাক্রমে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকতে পারে। যদিও আগামীকাল শুক্রবার থেকেই বাংলার আবহাওয়া ফের একবার আমূল বদলে যাবে। দিনের পারদ তো বটেই রাতের তাপমাত্রাও এক ধাক্কায় বেশ খানিকটা নেমে যাবে।

winter

আগামীকাল থেকেই উত্তর-পশ্চিম থেকে ঠান্ডা বাতাস হু হু করে এই রাজ্যে ঢুকবে। যার কারণে রাতের তাপমাত্রা কমবে। এছাড়া উত্তরবঙ্গে আপাতত বৃষ্টিপাতের কোনও সম্ভাবনা নেই। সেখানে মনোরম আবহাওয়া বজায় থাকবে। মৌসম ভবনের মতে, এউ পারদ ৩ থেকে ৫ ডিগ্রি নামতে পারে। ৮ তারিখ শুক্রবার থেকে আকাশ একদম পরিষ্কার হয়ে যাবে।

সম্পর্কিত খবর