বাইকে পরিবারের ৭ জনকে চাপিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন ব্যক্তি, তারপর যা হল … রইল ভাইরাল ভিডিও

আমরা ভারতীয়রা যুগাড়ের ক্ষেত্রে সবসময়ই সারা বিশ্বের থেকে এগিয়ে। আর এই যুগাড়ের জন্য আমাদের বেশ সুবিধা হয়। কিন্তু এই যুগাড়ের জন্য অনেকেই বেশ বিপদেও পড়েন। কিন্তু আজ যে যুগাড়ের কথা বলতে চলেছি তা শুনলে অবাক হবেন সবাই।

আসলে ভারতীয়রা বিশেষ করে ভারতীয় মধ্যবিত্তরা যুগাড়ে বিশেষ পারদর্শী। কিন্তু এই যুগাড়ে বিপদে পড়তে হলো এক পরিবারকে। এই পরিবার একটি বাইকে ৭ জনকে বসিয়েছিলেন। যেখানে সাধারণ মানুষ ৩ জন বসেন না চালান কাটার ভয়ে, সেখানে একসাথে ৭ জনকে চাপিয়ে এক অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এই পরিবার। আর এই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

ভাইরাল ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, একটি বাইকে ৭ জন ব্যক্তি বাইকে বসে আছেন সেখানে তার সাথে রয়েছে দুই নারী এবং চারটি শিশু। আর এই ভিডিও শেয়ার করেছেন আইপিএস দীপাংশু কাবরা। ভিডিওর ওপর বেশ মজার একটি ক্যাপশনও দেন তিনি। তিনি লেখেন যে, ‘‘যদি আপনি নিজের নিরাপত্তার সাথে খেলেন তাহলে এখুনি যমলোকের দরজা খুলবেন আপনার জন্য। এছাড়া তিনি এও লেখেন যে, দুর্ভাগ্যবশত এই ধরনের দৃশ্য ভারতে খুবই সাধারণ।

তবে ভিডিওর কমেন্ট সেকশনে মানুষ বেশ প্রতিক্রিয়া দিয়েছে। একজন লিখেছেন যে, ‘এইরকম মানুষজনের জন্যই রতন টাটা ন্যানো চালু করেন’। আবার অনেকে লিখেছেন যে, ‘ভারতে এইসমস্ত মানুষের আধিক্যের জন্যই দেশের এত পথ দুর্ঘটনা ঘটছে’।

মানুষ মজার প্রতিক্রিয়া দিয়েছে

এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে, লোকেরা বেশ মজার প্রতিক্রিয়া দিয়েছে। এক ব্যক্তি লিখেছেন, ‘এত কষ্টের পর গাড়ি নিজেই আত্মহত্যা করবে।’ তারপর আরেকজন বললেন, ‘এমন লোক দেখে রতন টাটা ন্যানো চালু করলেন।’ তখন একটা মন্তব্য আসে যে, ‘এই মানুষগুলোর কারণেই সড়কে দুর্ঘটনা ঘটছে। এবং তারা যে শুধু নিজেদের জীবনই বিপদে ফেলছে তাই নয়, পাশাপাশি অন্যদের জীবনও ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছে।’

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button