চারিদিকে ময়ূরের পাল! দিঘা, পুরী ভুলে মাত্র ৫০ টাকায় ঘুরে আসুন কাছের এই জায়গা থেকে

অনেক তো হল দিঘা (Digha), পুরী (Puri), দার্জিলিং (Darjeeling), সিকিম (Sikkim) এবার হাতে কয়েকটা ছুটি নিয়ে ঘুরে আসুন বর্ধমানের (Bardhaman) একটি সুন্দর গ্রাম লবণধার (Labandhar) থেকে। জীবনে একবার হলেও পূর্ব বর্ধমানের (Purba Bardhaman) আউশগ্রামের (Ausgram) অন্তর্গত এই সুন্দর লবণধার থেকে ঘুরে আসার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে সকলকে। আপনি যদি একবার এই গ্রামে যান তাহলে চোখ ফেরাতে পারবেন না গ্যারেন্টি।

এই লবণধার গ্রামে যারা একবার গিয়েছেন তাঁরা বারবার সেখানে যাওয়ার জন্য মনস্থির করে নেন। পূর্ব বর্ধমান জেলার আউশগ্রাম-২ ব্লকের দেবশালা গ্রামে অবস্থিত লবণধার আর্ট ভিলেজ। এখানে নিকটতম রেলওয়ে স্টেশন হল মানকর (১১ কিমি)। এই সুন্দর আর্ট ভিলেজে পৌঁছানোর জন্য যে কেউ একটি ই-রিকশো ভাড়া নিতে পারেন। লবণধার অন্নপূর্ণা ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এই গ্রামের প্রায় ৬০ শতাংশ বাড়ির সুন্দর দেয়াল চিত্র করার উদ্যোগ নিয়েছে।

   

এছাড়া এই গ্রামের আরও একটি বিশেষ ব্যাপার রয়েছে। এতদিন ময়ূর আপনি নিশ্চয় চিড়িয়াখানায় দেখেছেন। কিন্তু আপনি যদি বাস্তবে ময়ূর দেখতে চান তাহলে আপনার জন্য এই লবণধার গ্রামটি একদম আদর্শ। এই জায়গাটিতে খুব কাছেই রয়েছে এক টুকরো জঙ্গলমহল। এই জঙ্গলে গেলে আপনি অনেক ময়ূরের দেখা পাবেন। যাইহোক, অন্নপূর্ণা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সভাপতি অর্ণব ঘোষ বলেন, “এই এলাকায় শাল গাছ বেশি রয়েছে । মূলত এই মরশুমে গাছের পাতা ঝরে যায় । আর এই মরশুমে এই জায়গায় এলে ময়ূরের দেখা পাওয়া যাবে । লবণধার গ্রামেও ময়ূর রয়েছে , এবং এই এলাকার জঙ্গল জুড়ে অনেক ময়ূর আছে।”

labandhar

কেউ কেউ বলছেন, ‘সুন্দর জায়গা। গ্রামটা খুব সুন্দর করে নানা প্যাটার্ন ড্রইং দিয়ে সাজানো।’ এই গ্রামটিকে দেখলে যেন মনে হবে আস্ত একটা ক্যানভাস, যেখানে নানারকম জিনিসপত্র আঁকা রয়েছে।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর