ভালো বেতনের চাকরি ছেড়ে শুরু করেন অভিনব এক চাষ, আজ বছরে লাখ টাকা আয় এই কৃষকের

একটা সময় ছিল যখন মানুষ ধীরে ধীরে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছিলেন চাষ থেকে। আর আজকের দিন, এখন তরুণ প্রজন্ম চাকরি ছেড়ে শুরু করেছেন নিত্যনতুন ফল-ফুলের চাষ। জানলে অবাক হবেন অনেকে বিখ্যাত মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানির চাকরি ছেড়ে ফিরে এসেছেন চাষে। মানুষ যে আবার চাষে উৎসাহ পাচ্ছে তার জন্য অবশ্যই বিজ্ঞান দায়ী। চাষের সর্বাধুনিক পদ্ধতিতে ক্ষতি এড়ানো গেছে অনেকটাই। আর তারপরই আবার চাষে উৎসাহ পেয়েছেন বহু মানুষ।

আজ আপনাদের যার কথা বলতে চলেছি তিনিও চাকরি ছেড়ে দিয়ে শুরু করেন কৃষিকাজ। তার নাম গুঞ্জেশ গুঞ্জন। তিনি নিজের জেলায় প্রথমবারের মতো তিনি হাইব্রিড পেঁপে চাষ করেন। সেই চাষে সাফল্য পেয়ে এখন বহু জাতের পেঁপে তো বটেই, শুরু করেছেন বিভিন্ন জাতের তরমুজ, স্ট্রবেরি ইত্যাদি। তার এই তালিকায় নয়া সংযোজন জুকিনি চাষ।

এই চাষের জন্য বীজ আনেন দিল্লি থেকে। জুকিনি ফলটি দেখতে অনেকটাই হলুদ শসার মত। বিভিন্ন রকম সবজি তৈরি করা যায় এই ফল থেকে। হিমাচলের এক কৃষকের কাছে এই ফসলের ব্যাপারে জানতে পারে পরই গুগলে জুকিনি সংক্রান্ত সম্পূর্ণ তথ্য নিয়ে শুরু করেন এই চাষ। প্রায় ২০,০০০ টাকা দিয়ে কেনেন বীজ, তারপর শুরু হয় এই চাষ।

আজ তার খামারে উৎপাদিত জুকিনি বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা প্রতি কিলো দরে। সেই সবজি মার্কেটে প্রায় ১০০ টাকা প্রতি কিলোতে পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন মানুষ এই সবজির স্যালাড খেতে পছন্দ করেন। বিভিন্ন রকম সবজি বানিয়েও খাওয়া সম্ভব এটিকে। অনেকটা কুমড়োর মত করে রান্না করা যায় এই সবজি। গুঞ্জেশ জানাচ্ছেন যে এই চাষ খুবই লাভজনক।

জানা যায় শরীরের ওজন কমাতে খুবই উপকারী এই ফল। প্রচুর পরিমাণ ফাইবারে সমৃদ্ধ হওয়াটে জুকিনি খাওয়ার পর বহুক্ষণ ধরে খিদা পায়না আর। এছাড়া এই সবজিতে উপস্থিত বিটা ক্যারোটিন নামের একটি অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে যা শরীরের জন্য অত্যন্ত উপকারী। এছাড়া সেখানে লুটেইন এবং জেক্সানথিনের মতো উপাদান রয়েছে। অতিরিক্ত উপাদানে সমৃদ্ধ এই সবজির চাহিদা তাই আকাশছোঁয়া। এছাড়া এই সবজি কোলেস্টেরল কমায়, রোগ প্রতিরোধ শক্তি বাড়ায়, হজম ক্ষমতা বাড়ায় এবং ভিটামিন সি থাকায় ত্বককেও করে তোলে উজ্জ্বল।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button