এবার সিম পাওয়া আরও কঠিন, বড় পদক্ষেপ নিল TRAI

আপনিও কি স্মার্টফোন ব্যবহার করেন? আর স্মার্টফোন যদি ব্যবহার করে থাকেন তাহলে ফোনে নিশ্চয়ই সিম কার্ড রয়েছে? তাহলে আপনার জন্য রইল একটি জরুরি খবর। এই সিম কার্ডের মাধ্যমে কোনওরকম অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এবার বড় পদক্ষেপ নিল TRAI।

মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি নিয়মে এবার আমূল পরিবর্তন এনে সকলকে চমকে দিল টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (ট্রাই)। ২০০৯ সালে MNP সুবিধা চালু হয়। এটি চালু হওয়ার পর থেকে দফায় দফায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। এবারও কিন্তু তার ব্যতিক্রম ঘটল না। আর এবার সেটা নবমবারের মতো পরিবর্তন করা হয়েছে। ট্রাইয়ের এখন নতুন নিয়ম অনুযায়ী, আপনি যদি সম্প্রতি আপনার সিম পরিবর্তন করে থাকেন তবে আপনি আপনার মোবাইল নম্বরটি অন্য নেটওয়ার্কে পোর্ট করতে পারবেন না। মোবাইল নম্বর অন্য নেটওয়ার্কে ট্রান্সফার করতে গ্রাহকদের এখন সাত দিনের মতো অপেক্ষা করতে হবে।

   

আচমকা কেন এই সিদ্ধান্ত? এই প্রসঙ্গে ট্রাই বলছে, গ্রাহকদের প্রতারণা হাত থেকে বাঁচাতে ও অনলাইন জালিয়াতি রুখতে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে। এতে করে গ্রাহকদের নিরাপত্তা বাড়বে। আপনি যদি কখনও আপনার সিমটি হারিয়ে ফেলেন বা সিমটি ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে থাকে তবে আপনি আপনার টেলিকম অপারেটরের কাছে যান এবং সিমটি পরিবর্তন করুন। এই প্রক্রিয়াকে সিম সোয়াপ বলা হয়।

ট্রাইয়ের নতুন নিয়ম অনুযায়ী, সিম অদল-বদল করার পর অন্তত ৭ দিন আপনি আপনার নম্বর অন্য নেটওয়ার্কে ট্রান্সফার করতে পারবেন না। গ্রাহক যদি শেষ ৭ দিনের মধ্যে সিম পরিবর্তন করে থাকেন, তাহলে টেলিকম কোম্পানিগুলো তাকে ইউনিক পোর্টিং কোড (ইউপিসি) ইস্যু করতে পারবে না।

ইউপিসি কোড হল সেই কোড যার সাহায্যে আপনি আপনার মোবাইল নম্বরটি অন্য নেটওয়ার্কে স্থানান্তর করতে পারেন। অন্য কেউ যাতে আপনার নামে নতুন সিম না পায় সেজন্য এই সাত দিন অপেক্ষা করতেই হবে। জালিয়াতি ও স্প্যাম ঠেকাতে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে।

বিগত ৭ বছর ধরে সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গে যুক্ত। ডিজিটাল মিডিয়ায় সাবলীল। লেখার পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বই পড়ার নেশা।

সম্পর্কিত খবর