দু’দিনেই স্ক্রিন হয়ে যাচ্ছে কালো! ওয়ান প্লাসের এই স্মার্টফোন কেনার আগে ভাবুন দশবার

আপনি যদি দেড় লক্ষ টাকার সামান্য কম খরচ করে একটি মোবাইল (Mobile Phone) কিনে থাকেন, তাহলে এটা স্পষ্ট যে প্রত্যাশা সপ্তম আকাশে থাকবে। মাখনের মতো ইউজার ইন্টারফেস, ঝাঁ চকচকে ছবি এবং একটি দুর্দান্ত ডিসপ্লে, অনেক রকমের ফিচার ইত্যাদি থাকবে বলে ধরে নেওয়া হয়। কিন্তু কল্পনা করুন যদি এমন একটি ফোনের ডিসপ্লে যেটা কয়েক দিনের মধ্যেই ‘কালো’ হতে শুরু করে। শুধু কল্পনা কেন, অনেকের ফোনেই এমন হয়। কালো স্ক্রিন। সমপ্রতি এ ব্যাপারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট বেশ জনপ্রিয় হয়েছে।

প্রখ্যাত প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ মুকুল শর্মাও ৭ জানুয়ারি এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট করেছেন। গত ২৭ ডিসেম্বর এ বিষয়ে টুইটও করেন তিনি। পোস্টে একটি দামী ফোনকে দেখানো হয়েছে। কোম্পানির নামও হয়তো ইতিমধ্যে অনেক জানেন। এতো টাকা দিয়ে ফোনটা কেনার পরেও স্ক্রিন কালো হতে শুরু করেছে। ভাবুন একবার যদি আপনার সঙ্গেও এমনটা হয়, কী করবেন তাহলে?

   

ওয়ানপ্লাস ওপেন (OnePlus Open) ২০২৩ সালের অক্টোবরে চালু হওয়ার আগে দুর্দান্ত গুঞ্জন তৈরি করেছিল। দেখে মনে হচ্ছিল ভাঁজ করা ফোনটি কোম্পানিকে আবার সেরার আসন পাইয়ে দিতে পারে। টাইটানিয়াম এবং কার্বন ফাইবার যুক্ত একটি বডি। স্ন্যাপড্রাগন জেন ২ চিপসেট। অ্যামোলেড স্ক্রিন, রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্জ এবং পিক-ব্রাইটনেস ২৮০০ নিট। অর্থাৎ আলো কম থাকলেও ফোনে সবকিছু পরিষ্কারভাবে দৃশ্যমান হবে। এক মুহূর্তের জন্য মনে হচ্ছিল কোম্পানি বুঝি তার সেরা ফোন লঞ্চ করে ফেলেছে। কিন্তু সেটা হল কই!

এমনিতেও বছর খানেক আগে শোনা গিয়েছিল ওয়ানপ্লাস (OnePlus) তাদের প্রত্যাশিত বাজার থেকে অনেকটা হারিয়েছে। এখন অনেক কোম্পানি দুর্দান্ত কিছু প্রতিশ্রুতি দিয়ে iPhone-কে টেক্কা দেওয়ার চেষ্টা করে। খাতায় কলমে সত্যি অনেক ফোন বেশ লোভনীয়। টাকা থাকলে অনেকেই হয়তো কিনেও থাকেন। কিন্তু কেনার পর কী হয়, সেই ফোন কি প্রত্যাশা পূরণ করতে পারছে?

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া যে ফোনটা নিয়ে এতো আলোচনা, সেই দামী ফোনের স্ক্রিন এতটাই কালো হয়ে গিয়েছে যে দেখলে মনে হবে যে আগুনে পোড়া। আসলে আগুনে পোড়া না। কোম্পানির ব্যর্থতা। দাম অনুযায়ী প্রোডাক্ট দিতে পারেনি কোম্পানি। যার ফল ভুগতে হচ্ছে গ্রাহককে। তাই ছবি দেখেই ফোন না কিনে আগে সব দিক দেখে নেওয়া ভালো। দাম বেশি মানেই জিনিস ভালো এমনটা যে সব সময় হয় না সেটার হাতে গরম প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। এবার সতর্ক হওয়ার সময়।

সম্পর্কিত খবর