জাগ্রত কালী মূর্তি চুরি করে পালায় চোর, তারপরই ঘটে অলৌকিক ঘটনা! শুনলে অবাক হবেন

সনাতন হিন্দু ধর্মে দেব-দেবীদের নিয়ে অতিপ্রাকৃত গল্পের চল বেশ ভালোই রয়েছে। যদিও বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেগুলো হয় শোনাকথা। কিন্তু এরকম অলৌকিক ঘটনা যদি চোখের সামনেই ঘটে তখন? অনেকই আছেন যারা বিজ্ঞানের বুলি আউড়িয়ে অলৌকিক বস্তুকে তুচ্ছ জ্ঞান করেন। কিন্তু হুগলিতে (hooghly) এবার এমনই এক ঘটনা ঘটেছে যা দেখে বিস্মিত এলাকাবাসী।

ঘটনার স্থান হুগলি জঙ্গিপাড়া। কয়েকদিন আগেই রাত্রিবেলা অন্ধকারের মধ্যে তালা ভেঙে দুষ্কৃতীরা বহু দিনের পুরনো জাগ্রত কালী মায়ের মূর্তি চুরি করে নিয়ে যায়। মূর্তিটি তৈরী হয় বহুমূল্য পাথর দিয়ে। বর্তমানে কয়েক কোটি টাকায় বিক্রি করা সম্ভব এই মূর্তি। প্রচলিত আছে যে, এই মন্দির থেকে কেও খালি হাতে ফেরেনা, সবার ইচ্ছে পূরণ করেন জাগ্রত কালী মা।

মূর্তি চুরি হওয়ার সাথে সাথেই এলাকাজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। মূর্তি ফিরে পেতে পুলিশের দ্বারস্থ হয় এলাকাবাসী। গত ৭ অক্টোবর গভীর রাতে মন্দিরের তালা ভেঙে চুরি যায় বিগ্রহটি। ভক্ত সন্তানগণ এই ঘটনায় ব্যাকুল হয়ে পড়লেও তারা আশাবাদী ছিলেন মায়ের মূর্তি ফিরে পাবেন বলে। শীঘ্রই মা তার বাসস্থানে ফিরবেন বলে দৃঢ় বিশ্বাস ছিল তাদের।

আসলে মায়ের অলৌকিকতার প্রমাণ আগেও পেয়েছে গ্রামবাসী, তাই তাদের মনে আশা ছিল এবারেও সেই একই ঘটনা ঘটবে। আসলে এর আগে মায়ের গহনা ও প্রণামী বাক্স চুরি গিয়েছিল। চোরের সন্ধান তো মেলেনি কিন্তু পাশেই একটি পুকুরের কাছ থেকে উদ্ধার হয় সেগুলি। আর এবারেও সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি দেখা গেল। মায়ের বিগ্রহ খুঁজে পাওয়া গেল শ্মশান থেকে!

প্রথমে কয়েকজন দেখতে পাওয়ার পর সবাইকে জড়ো করে মাকে আবারো ফিরিয়ে নিয়ে আসেন তারা। বিগ্রহকে আবার মন্দিরে স্থাপন করা হয়। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ ভাইরাল হয়েছে এই ঘটনা।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button