৫০ শতাংশ ভর্তুকি দেবে সরকার, সামান্য বিনিয়োগে এই ব্যবসা থেকে আয় করুন লাখ লাখ টাকা

আপনি যদি কোন ব্যবসা (Business) শুরু করার কথা ভাবছেন, যেখানে কম বিনিয়োগেই বেশি মুনাফা অর্জন করা সম্ভব হবে তাহলে আজ আমরা আপনাকে সেরকমই একটি ব্যবসায়িক ধারণা সম্পর্কে জানাতে চলেছি। এই ব্যবসার নাম মুক্তার ব্যবসা। মুক্তার ব্যবসা করে আপনি ১০ গুণ পর্যন্ত আয় করতে পারেন।

মুক্তার ব্যবসা খুবই কঠিন, কিন্তু আপনি যদি এই ব্যবসাটি একবার করতে শিখে যান তাহলে সহজেই এই ব্যবসা থেকে মুনাফা অর্জন করতে পারবেন। পাশাপাশি এ ব্যবসার জন্য যথাযথ প্রশিক্ষণও ব্যয়ের ৫০ শতাংশ সরকার বহন করে।

এই ব্যবসার সব থেকে বড় সুবিধা হল এই ব্যবসার শুরুর থেকেই সরকারি সাহায্য পেয়ে যাবেন আপনি। ভারত সরকার মুক্তা চাষের জন্য ভর্তুকি দেয়, তাই আপনাকে মোট খরচের ৫০ শতাংশ ব্যয় করলেই হবে। তাই একদম প্রাথমিক ধাপেই ,আপনার যদি অর্থের অভাব হয় তবে চিন্তা করার দরকার নেই।

মুক্তা চাষ শুরু করার জন্য আপনাকে প্রথমেই একটি পুকুর খনন করতে হবে, যেখানে ঝিনুক রাখা যেতে পারে। সেই পুকুর খননের অর্থ যদি কম পড়ে সেক্ষেত্রে পুকুর খননের খরচের ৫০ শতাংশও সরকার বহন করবে।

ব্যবসা শুরুর পদ্ধতি : বিহার এবং দক্ষিণ ভারতের দারভাঙ্গা জেলায় সবচেয়ে বেশি মুক্তা চাষ করা হয়। এছাড়াও মধ্যপ্রদেশের হোশাঙ্গাবাদ এবং মুম্বাইতে যুবকদের মুক্তা চাষের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়, যাতে তারা চাষ করে তাদের আয় বাড়াতে পারে। পুকুর খনন করার পর সেখানে ১০ থেকে ১৫ দিন জাল বেঁধে পুকুরে রাখা হয় যাতে এটি জলের ভিতরে থাকে। ১৫ দিন পর ঝিনুককে পুকুর থেকে বের করে একটু আঁচড়ে ফেলা হয়। এটা করা হয় যাতে ভেতরের একটি স্তর তৈরি করা হয়, এরপর আবার সেগুলিকে জলে ছেড়ে দেওয়া হয়।

pearl oyster

আপনি কত উপার্জন করবেন : এই ব্যবসায় লাভের কথা বললে, একটি ঝিনুকের মধ্যে তৈরি করতে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা খরচ করতে হয়। এক একটি ঝিনুকে ১ থেকে ২টি মুক্তা প্রস্তুত করা হয়। ভারতীয় বাজারে এর দাম ১৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত। আপনি ৩৫ টাকা খরচ করে ৪০০ টাকা লাভ করবেন। এভাবে আপনি সহজেই ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা আয় করতে পারেন।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button