একজনে হবে না, চাই চারজন! বরের মধ্যে এই জিনিস লাগবেই! দ্বিতীয় বিয়ের জন্য শর্ত শ্রীলেখার

টলিউডের নায়িকারা বিতর্ক ভালোবাসেন বললে অত্যুক্তি করা হয়না। বিশেষ করে অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra) তো এই তালিকায় একদম ওপরের দিকে থাকবেন। রাজনীতি থেকে বিভিন্ন বিষয়ে কমেন্ট করতে থাকেন তিনি। কদিন আগেই আবার সোশ্যাল মিডিয়াতে ফলাও করে লিখেছেন যে, হরিনাম শুনলে তার গাত্রজ্বালা করে। তারপর আবার সদ্যই এক সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তিনি, সেটাও বেশ ভাইরাল হচ্ছে।

শ্রীলেখা মিত্র স্পষ্ট করে দেন যে তার বিয়ের জন্য এক দুইজন কাফি নয়, চারজন অন্তত লাগবেই। বহু দিন হলো ডিভোর্সি হয়েছেন অভিনেত্রী। সাক্ষাৎকারে তাকে প্রশ্ন করা হয় এবার কেমন ছেলেকে বিয়ে করবেন তিনি। শ্রীলেখা স্পষ্ট জবাব দেন, ‘পয়সাওয়ালা হতে হবে। আর আমি স্ট্রাগলার চাই না। দেখতে ভালো হতে হবে। মানে বডি বিল্ডার টাইপস নয়। ইন্টেলিজেন্টলি গুড লুকিং হতে হবে, পড়াশোনা জানা।’

   

এক্স হাজব্যান্ডের কথাও টানেন তিনি। তার মতে, ওপরোক্ত সমস্ত গুণই রয়েছে তার এক্স হাজবেন্ডের মধ্যে। তাই অন্তত সেই বেঞ্চমার্ক টপকাতেই হবে। সাথে শ্রীলেখা আরো বলেন, ‘সিনেমা নিয়ে পাগল হতে হবে বলছি না, তবে হ্যাঁ এরকম হতে হবে যার সঙ্গে সিনেমা নিয়ে আলোচনা করতে পারি। আর সঙ্গে খুব বেশি পজিসিভ হলে চলবে না। ওই কে ফোন করল, কেন ফোন করল প্রশ্ন করা চলবে না সব সময়। আমি ওয়ান ম্যান উওম্যান। সেই বিশ্বাসটা করতে হবে।’

sreelekha mitra says after partha chatterjee arrest by ed sixteen nine

তার অবশ্য সেখানেই দাবীর শেষ নেই। শ্রীলেখার কথায়, ‘ওই যে বললাম অনেক কিছু চাই। একজনের মধ্যে কখনোই পাব না। তাই আমার চারজন লাগবে। যাই হোক ওই যে বললাম পেলও ভালো আর না পেলেও ভালো।’ আবার কদিন আগেই বাংলাদেশের এক সংবাদমাধ্যমকে বলে এসেছেন, ‘আমি এমন কাউকে বিয়ে করব না যে বিবাহিত। আমি হোম ব্রেকার নই। আমার তাই এমন পুরুষ পছন্দ যে ভরসা যোগ্য, সিঙ্গেল’।

শ্রীলেখা মিত্র খুল্লাম খুল্লা জানিয়ে দেন, ‘বিয়ের পর আমি দু-এক জনের সঙ্গে প্রেম করেছি যারা আমার থেকে বয়সে ছোট ছিল।’ উল্লেখ্য, ২০০৩ সালেই শ্রীলেখা বিয়ে করেন শিলাদিত্য সান্যালকে। বিয়ের ১০ বছরের মাথায় ২০১৩ সালে ডিভোর্স হয় দুজনের। মেয়েকে একাই বড় করেছেন তিনি। ডিভোর্স হলেও স্বামীর সাথে তিক্ততা নেই তার।

সম্পর্কিত খবর