১৮ বছর বয়সেই ধোনি, কোহলির মতো বিধ্বংসী! বোলারদের ঘুম কাড়ছে এই তরুণ ক্রিকেটার

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ বহু তারকার জন্ম দিয়েছে। আসন্ন IPL মরসুমেও একাধিক তরুণ ক্রিকেটারের দিকে সবার নজর থাকবে। প্রতিভাধর বহু ক্রিকেটার ভারতে রয়েছেন। কিন্তু সবার পক্ষে তারকা হওয়া সম্ভব হয় না। শুধু ক্লাব ক্রিকেট তারকাই নয়, ভারতের হয়ে খেলে নিজের জায়গা পাকা করাই আসল লক্ষ্য।

ঋষভ পন্থকে টেক্কা দেবেন

তৃণমূল স্তর থেকে জাতীয় দলের যাওয়ার পথ সোজা নয়, সবাই এই পথে যাত্রা সম্পন্ন করতে পারে না। কিন্তু দিল্লি ক্যাপিটালসের এক ক্রিকেটারের মধ্যে এই সম্ভাবনা রয়েছে। চলতি মরসুমের নিলামে তরুণ খেলোয়াড় কম মূল্যে দলে নিয়ে নিতে পেরেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। দিল্লি ক্যাপিটালস মানে ঋষভ পন্থের দল। কে এই ক্রিকেটার?

   

আমরা কথা বলছি স্বস্তিক চিকারা সম্পর্কে। স্বস্তিকা চিকারা উত্তর প্রদেশে ক্রিকেটার। এই রাজ্য থেকেই উঠে এসেছেন রিঙ্কু সিং। গতবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে রিঙ্কু দেখিয়ে দিয়েছিলেন কেন তাঁকে এতটা ভরসা করে দলে রেখেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। দিল্লি ক্যাপিটালসও চিকারার থেকে একমই কিছু আশা করতে পারে।

রিঙ্কু সিংয়ের সতীর্থ স্বস্তিক চিকারা

রিঙ্কু ও স্বস্তিকের মধ্যে কিছু মিল রয়েছে। ফর্মে থাকলে দু’জনেই একার হাতে ঘুরিয়ে দিতে পারেন ম্যাচের মোড়। টি২০ ক্রিকেট দুই তরুণ নিজ নিজ ক্ষেত্রের ধুরন্ধর ব্যাটসম্যান। সিং-এর মতো স্বস্তিকের ব্যাট একবার চলা শুরু হলে থামানো মুশকিল। চার ছয় মারেন ঝড়ের গতিতে। যুব ক্রিকেটে স্বস্তিকের এই ঝোড়ো ব্যাটিংয়ের ওপর আস্থা রেখেই তাঁকে দলে নেওয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস টিম ম্যানেজমেন্ট। ২০ লক্ষ টাকার বেস প্রাইসে তাঁকে দলে নিয়েছে দিল্লির ফ্রাঞ্চাইজি দলটি।

সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে সম্ভাব্য এই তারকা ক্রিকেটারের সাক্ষাৎকার প্রকাশ করা হয়েছিল। মিডিয়া রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, চিকারা খুব অল্প বয়সেই বলে দিয়েছিলেন যে তিনি ঝড়ো ব্যাটিং করতে পছন্দ করেন। ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সহবাগকে নিজের আইডল মনে করেন তিনি। খবরে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ১৯তম বলিদানী রামপ্রসাদ বিসমিল ওপেন ক্রিকেট টুর্নামেন্টে ১৬৭ বলে ৫৮৫ রান করে ক্রিকেট প্রেমীদের নজর আকর্ষণ করেছিলেন স্বস্তিক চিকারা। তারপর থেকেই ক্রমে লাইম লাইটে আসতে শুরু করেছিলেন এই ক্রিকেটার।

ছোটোবেলা থেকে খেলাধুলোর প্রতি ভালোবাসা। এখন পেশা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে লিখছে বিগত কয়েক বছর ধরে।

সম্পর্কিত খবর