ধোনির মুকুট ছিনিয়ে নেবেন রোহিত! ইতিহাস গড়ার লক্ষ্যে এক পা দূরে হিটম্যান

ভারত (India) বনাম আফগানিস্তানের (Afghanistan) মধ্যে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে এটাই টিম ইন্ডিয়ার (India national cricket team) শেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। এ কারণে প্রস্তুতির দিক থেকে এই সিরিজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এরই মধ্যে ভারতীয় দল ঘোষণা করা হয়েছে। রোহিত শর্মা (Rohit Sharma) ও বিরাট কোহলি (Virat Kohli) দলে ফিরেছেন। অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে রোহিতের হাতে। এশিয়ান গেমসের বেশির ভাগ সময়েই দলে ভালো করা তরুণ খেলোয়াড়রা সুযোগ পেয়েছেন। এই সিরিজে ভারতের সেরা টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হতে পারেন রোহিত। তিনি তিন ধাপ দূরে।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জেতা ভারতীয় অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি (MS Dhoni)। টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক হিসেবে ৪১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতেছেন তিনি। ৩৯ টি জয় নিয়ে অধিনায়কত্বের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন রোহিত শর্মা। এখন ভারত যদি আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নেয়, তাহলে রোহিত অধিনায়ক হিসেবে ৪২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতবেন এবং এইভাবে তিনি ভারতের সবচেয়ে সফল টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হয়ে উঠবেন।

   

কিংবদন্তি মহেন্দ্র সিং ধোনিকে টপকে তিনি এই অবস্থান অর্জন করতে পারেন। একই সঙ্গে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে যদি টিম ইন্ডিয়া ২টি ম্যাচ জিততে পারে, তাহলে তিনি ধোনির সমকক্ষ হবেন।

টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি জয় পাওয়া ভারতীয় অধিনায়ক

• মহেন্দ্র সিং ধোনি – ৪১ ম্যাচ
• রোহিত শর্মা – ৩৯ ম্যাচ
• বিরাট কোহলি – ৩০ ম্যাচ
• হার্দিক পান্ডিয়া – ১০ ম্যাচ

বিরাট কোহলির পর দায়িত্ব নেন রোহিত শর্মা

২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বিরাট কোহলি অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর পর টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়কত্বর দায়িত্ব নেন রোহিত শর্মা। তিনি এখন পর্যন্ত ৫১টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ভারতের অধিনায়কত্ব করেছেন, যার মধ্যে টিম ইন্ডিয়া ৩৯টিতে জিতেছে এবং ১২টিতে হেরেছে। তিনি ভারতের দ্বিতীয় সফলতম টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। তাঁর অধিনায়কত্বে টিম ইন্ডিয়া ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠলেও সেখানে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে পরাজয়ের মুখে পড়তে হয়েছিল।

rohit kohli batting

১১ জানুয়ারি থেকে শুরু সিরিজ

ভারত বনাম আফগানিস্তান প্রথম টি২০ ম্যাচটি হবে ১১ জানুয়ারি। আগামী ১৪ জানুয়ারি ইন্দোরের হোলকার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি। আগামী ১৭ জানুয়ারি বেঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে হবে সিরিজের তৃতীয় ম্যাচ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে দুই দলের জন্যই এই সিরিজটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সম্পর্কিত খবর