BCCI, নির্বাচকদের উপর অভিমানী শামি! মনের দুঃখ বয়ান করলেন টিম ইন্ডিয়ার বোলার

২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপে (Cricket World Cup) আধিপত্য বিস্তার করা ফাস্ট বোলার মহম্মদ শামিকে (Mohammed Shami) ২০২৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে (ICC Men’s T20 World Cup) কি খেলতে দেখা যাবে? এই প্রশ্নের উত্তর শামি নিজেও জানেন না। সদ্য অর্জুন পুরস্কার (Arjuna Award) পেয়েছেন। পুরস্কার পাওয়ার পর সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে হয়েছে অনেক কথা। হয়তো কিছুটা অভিমানী ভারতের অন্যতম সেরা স্পিড মার্চেন্ট।

শামির সঙ্গে কথা বলতে চায় BCCI

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (Board of Control for Cricket in India) নির্বাচকদের শামির বিষয়ে তাদের অবস্থান করতে হবে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আর মাত্র ৫ মাস বাকি এবং তার আগে নির্বাচকরা এবং ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট শামির সঙ্গে সাদা বলের ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়ে কথা বলতে চায়। বৃহস্পতিবার থেকে আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তিন ম্যাচের সিরিজে জায়গা পাননি টিম ইন্ডিয়ার তিন প্রধান ফাস্ট বোলার মহম্মদ শামি, জসপ্রীত বুমরাহ ও মহম্মদ সিরাজ। শামি গোড়ালির চোট থেকে সেরে উঠছেন এবং বুমরাহ ও সিরাজকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে।

   

শামির বয়স এখন ৩৩ বছর এবং টিম ম্যানেজমেন্ট তাঁর যত্ন নিতে চায় বলে খবর। সর্ব ভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, BCCI কর্তারা শামিকে জিজ্ঞেস করতে পারেন তিনি ভবিষ্যতে কী পরিকল্পনা করছেন সে ব্যাপারে। বছরের পর বছর ধরে তিনি ভারতীয় দলের অনেক দায়িত্ব বহন করেছেন। এই খবর অনুযায়ী, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে শামির সঙ্গে এই কথোপকথন কিছুটা করতে হয়েছে নির্বাচক ও ম্যানেজমেন্টকে। কিন্তু ইনজুরির কারণে এই সফরে যেতে পারেননি তিনি। 

আর তিন ফরম্যাটে দেখা যাবেনা মহম্মদ শামিকে

এমন পরিস্থিতিতে এখন ম্যানেজমেন্ট ও নির্বাচকরা শিগগিরই তাঁর সঙ্গে কথা বলবেন। কারণ আইপিএল ও টেস্ট ক্রিকেটের পর তিনি কতটা ক্রিকেট খেলতে চান তা স্পষ্ট হওয়া উচিৎ। ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর থেকেই আলোচনা শুরু হয় যে শামিকে আর তিন ফরম্যাটেই ধরে রাখা ঠিক নয়। গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে তাঁকে এই ফরম্যাটে দেখা না গেলেও পরে হঠাৎ করেই প্রয়োজনে বিশ্বকাপ দলে নির্বাচিত হন তিনি। এবার পরিষ্কার ছবি নিয়ে এগিয়ে যেতে চায় নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্ট।

mohammed shami sad

আসন্ন টি২০ বিশ্বকাপ খেলা প্রসঙ্গে শামি বলেছেন, “টি২০ বিশ্বকাপের আগে আইপিএল রয়েছে। সেখানে খেলব। তার পর যদি নির্বাচকেরা মনে করেন আমাকে বিশ্বকাপের জন্য দলে নেওয়া ঠিক হবে তা হলে আমি তৈরি।”

সম্পর্কিত খবর