২৫ কোটি জলে! মিচেল স্টার্ককে নিয়ে কী করবে কলকাতা?

মর্নিং শোজ দ্যা ডে প্রবাদের ওপর আস্থা রাখলে কলকাতা নাইট রাইডার্স সমর্থকদের জন্য আশঙ্কার যথেষ্ট কারণ রইল। আইপিএল ২০২৪-এর প্রথম ম্যাচ কলকাতা নাইট রাইডার্স জিতলেও স্বস্তিতে নেই গোলাপি বাহিনী। কারণ একজন।

এবারের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ শুরু হওয়ার আগে থেকে আলোচনার কেন্দ্রে চলে এসেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক বোলার। যাকে প্রায় ২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে নিজেদের দলের সঙ্গে যুক্ত করেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। প্রায় ২৫ কোটি টাকার এই বোলার এখন নাইটদের চিন্তার কারণ হয়ে উঠেছে। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে জেতা ম্যাচ হাতছারা হলে কেকেআর সমর্থকরা মিচেল স্টার্ককে কাঠগড়ায় তুলতে পারতেন নির্দ্বিধায়।

   

দাম যেমন আশা তেমন। প্রায় ২৫ কোটি টাকার বিনিময়ে যে বোলারকে দলে নিয়ে আসা হয় তাঁর কাছ থেকে সমর্থকরা কী আশা করতে পারেন? ভালো বোলিং, ম্যাচ ঘোরানো মুহূর্ত ইত্যাদি। মিচেল স্টার্কের কারণে ম্যাচের মোড় সত্যিই ঘুরতে চলেছিল। তবে কলকাতা নাইট রাইডার্সের পক্ষে নয় বিপক্ষে। শেষ ওভারে হেনরিক ক্লাসেনকে হর্ষিত রানা আউট না করলেও অন্যরকম হতে পারতো ম্যাচের ভাগ্য।

২০৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের শুরুটা হয়েছিল দারুণ। প্রথম উইকেটে ৬০ রান যোগ করেন দুই ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল ও অভিষেক শর্মা। এই পার্টনারশিপ ভাঙেন হর্ষিত রানা। ২১ বলে ৩২ রান করেন মায়াঙ্ক। এই সময়ে তিনি ৪টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন। ৭১ রানের ইনিংসে দ্বিতীয় ধাক্কা খায় এসআরএইচ। অভিষেক শর্মা ১৯ বলে ৩২ রান করেন। আন্দ্রে রাসেল নেন উইকেট।

ষষ্ঠ উইকেটে ৫৮ রানের জুটি গড়েন শাহবাজ আহমেদ ও হেনরিক ক্লাসেন। শেষ ওভারে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আহমেদ। ২৩ বলে ১৬ রান করেন তিনি। এরপর ক্লাসেনও হারান তাঁর উইকেট। হায়দরাবাদকে জয়ের পথে নিয়ে যাওয়া ক্লাসেন ২৯ বলে ৬৩ রান করেন, মারেন ৮টি ছক্কা। কলকাতার হয়ে হর্ষিত রানা ৩টি, আন্দ্রে রাসেল ২টি ও বরুণ চক্রবর্তী, সুনীল নারিন ১টি করে উইকেট নেন। ডাহা ফেল করেছেন আইপিএল ইতিহাসের সবথেকে দামী ক্রিকেটার মিচেল স্টার্ক। ৪ ওভারে ৫৩ রান দিয়েছেন তিনি। নিতে পারেননি কোনও উইকেট।

ছোটোবেলা থেকে খেলাধুলোর প্রতি ভালোবাসা। এখন পেশা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে লিখছে বিগত কয়েক বছর ধরে।

সম্পর্কিত খবর