কোনওমতেই বৃষ্টি ভেস্তে দিতে পারবে না ম্যাচ! T20 বিশ্বকাপের আগে ৩ নয়া নিয়ম লাগু ICC-র

টি২০ বিশ্বকাপ আসন্ন। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ ২০২৪ হওয়ার পরে শুরু হতে চলেছে ক্রিকেটের ছোট ফরম্যাটের বিশ্বকাপ। এবারের কুড়ি বিশের বিশ্বকাপ হবে দুই দেশের তত্ত্বাবধানে। আমেরিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে। গ্রুপ পর্বের শুরুর দিকে আমেরিকায় বেশ কিছু ম্যাচ হওয়ার কথা রয়েছে। পরের দিকে বেশিরভাগ জরুরি ম্যাচ খেলানো হতে পারে ওয়েস্ট ইন্ডিজে। আমেরিকায় নতুন করে মাঠে তৈরি করা হচ্ছে ক্রিকেটের এই উৎসবের জন্য । কিন্তু এই উৎসবে একেবারে মাতি করে দিতে পারে বৃষ্টি।

বৃষ্টি হলে কী হবে বিশ্বকাপের ম্যাচের? এই প্রশ্ন আপাতত ঘুরপাক খাচ্ছে ক্রিকেট প্রেমীদের মাথায়। কারণ অতীতে ক্রিকেট অনুরাগীরা এশিয়া কাপের সাক্ষী থেকেছেন। গতবারের এশিয়া কাপ হয়েছিল হাইব্রিড মডেলে। বেশ কিছু ম্যাচ হয়েছিল শ্রীলঙ্কায়। সেখানে তখন বৃষ্টি। বৃষ্টির কারণে বিঘ্নিত হয়েছিল বহু ম্যাচ। পরে কিছু ক্ষেত্রে রিজার্ভ ডের ব্যবস্থা করা হলেও ম্যাচে একেবারে ভেস্তে যাওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছিল।

   

বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টে ম্যাচ ভেস্তে যাওয়া কিংবা বাতিল হওয়া কোনও মতে কাম্য নয়। ফলাফল জরুরি। তাই এ ব্যাপার বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল আইসিসি।

বৃষ্টি হলে টি-২০ বিশ্বকাপে কী সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে সে ব্যাপারে জানা গিয়েছে নিয়ম। খবর অনুযায়ী, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল ম্যাচে জন্য রিজার্ভ ডে রাখা হবে, এই ICC-র এই সিদ্ধান্তের কথা আগেই শোনা গিয়েছিল।এছাড়া অন্যান্যা ম্যাচের ক্ষেত্রেও কাউন্সিলের পক্ষ থেকে বড় ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষণা অনুযায়ী, গ্রুপ পর্ব ও সুপার এইটে দ্বিতীয় ইনিংসে কমপক্ষে ৫ ওভার বল করা আবশ্যক। তবেই ডাকওয়ার্থ-লুইসের নিয়ম অনুযায়ী ফল পাওয়ার চেষ্টা করা হবে।

এরপর সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে কমপক্ষে ১০ ওভার খেলা উচিৎ বলে আইসিসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দশ ওভার খেলা হওয়ার পরেই ডাকওয়ার্থের নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচের ভাগ্য গণনা করা যাবে। রিজার্ভ ডে-তেও বৃষ্টি হলে সেমিফাইনাল ও ফাইনালের ক্ষেত্রে এই নিয়ম বলবৎ করা হবে। আইসিসির এই গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণার পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উত্তেজনা বজায় থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ছোটোবেলা থেকে খেলাধুলোর প্রতি ভালোবাসা। এখন পেশা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে লিখছে বিগত কয়েক বছর ধরে।

সম্পর্কিত খবর