এখনও প্লে-অফে উঠতে পারে ইস্টবেঙ্গল! শুধু করতে হবে এই কাজ

ইস্টবেঙ্গলের সামনে এখনও রয়েছে পরের রাউন্ডে যাওয়ার সুযোগ। মোহনবাগান সুপার জায়ান্টের কাছে হেরে নিজেদের কাজ আরও কঠিন করে ফেলেছে ইস্টবেঙ্গল এফসি। তবে সব দরজা এখনো বন্ধ হয়নি। প্লে অফ রাউন্ডে যাওয়ার একটা ক্ষীণ আশা এখনও লাল হলুদ ক্লাবের সামনে রয়েছে।

গানের কথাতেই রয়েছে, দাদা অংক কি কঠিন! ইস্টবেঙ্গল দলের ফুটবলাররা সেটা এখন বেশ ভালই বুঝতে পারছেন। ডার্বি না হারলে অংক হয়তো কিছুটা সহজ হতে পারতো। কিন্তু এখন সে সব ভেবে কাজ নেই। পরপর ম্যাচ জিতলে কিংবা পয়েন্ট লাভ করলে সুবিধা হতো ক্লাবের। এখন তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে অন্য দলের দিকে।

   

ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সামনে প্লে অফে যাওয়ার সম্ভাবনা এখনও রয়েছে। আসলে হায়দরাবাদ এফসি ছাড়া বাকি সব দলের সামনেই এখনও পরের রাউন্ডে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। হায়দরাবাদ এফসি ইতিমধ্যে এবারের ইন্ডিয়ান সুপার লিগ থেকে ছিটকে গিয়েছে। ইস্টবেঙ্গল ছাড়াও জামশদপুর এফসি, নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড এফসি, বেঙ্গালুরু এফসি সহ একাধিক দল যেতে পারে পরের পর্বে।

মোহনবাগান সুপার জায়ান্ট ইতিমধ্যে প্লে অফে যাওয়ার জন্য যোগ্যতা অর্জন করেছে। তাদের এখন লক্ষ্য লিগ শিল্ড জেতা। গ্রুপ পর্বের অবশিষ্ট ম্যাচগুলো জিততে পারলে বাগানের মোট পয়েন্ট হবে ৫১। আইএসএলে একান্নো পয়েন্ট পেলে তা হবে একটি রেকর্ড। মোহনবাগান পরের সব ম্যাচে জিতলে সহজেই জিততে পারবে লিগ শিল্ড।

কোন অংকে পরের পর্বে যেতে পারবে ইস্টবেঙ্গল?

  • বেঙ্গালুরু এফসিকে আরও তিন পয়েন্ট খোয়াতে হবে।
  • পাঞ্জাব এফসির বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গল এফসিকে জিততে হবে।
  • নর্থইস্ট ইউনাইটেড এফসি-কে আরও পাঁচ পয়েন্ট খোয়াতে হবে।
  • জামশেদপুর এফসি ও চেন্নাইন এফসিকেও তিন পয়েন্ট করে হাতছাড়া করতে হবে।

ছোটোবেলা থেকে খেলাধুলোর প্রতি ভালোবাসা। এখন পেশা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে লিখছে বিগত কয়েক বছর ধরে।

সম্পর্কিত খবর