বড় বিপাকে ধোনি, হাইকোর্টে প্রতারণার মামলা দায়ের মাহির বিরুদ্ধে! গ্রেফতার হবেন?

ভারতীয় ক্রিকেট দলের (India national cricket team) প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির (MS Dhoni) বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের হল দিল্লির উচ্চ আদালতে (Delhi High Court)। ধোনির  দুই প্রাক্তন ব্যবসায়িক অংশীদার মিহির দিবাকর ও মিহিরের স্ত্রী সৌম্য দাস মামলাটি দায়ের করেছেন।। আগামী ১৮ জানুয়ারি এ মামলার শুনানি হবে।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে রাঁচি সিভিল কোর্টে আর্কা স্পোর্টস প্রাইভেট লিমিটেড ও ম্যানেজমেন্ট লিমিটেডের মিহির ও সৌম্যর বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা দায়ের করেছিলেন ধোনি। ব্যবসা (Business) করার নামে এই দুজন কথার খেলাপ করেছিলেন বলে ধোনির অভিযোগ। কথা মতো টাকা হাতে আসেনি বলেও অভিযোগ করেছিলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার।

   

নিজের পক্ষে মিহির বলেন, আদালত তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় কোনও সুনির্দিষ্ট সিদ্ধান্ত দেওয়ার আগেই ধোনির আইনজীবী দয়ানন্দ শর্মা ২০২৪ সালের ৬ জানুয়ারি একটি সাংবাদিক সম্মেলন করে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন। মিহির ও সৌম্য বলছেন, গণমাধ্যম এসব অভিযোগ মাত্রাতিরিক্তভাবে তুলে ধরেছে, যা তাদের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছে। নিজের সুনামের ক্ষতি রোধের দাবি জানিয়ে মানহানির মামলা করা হয়েছে মাহির বিরুদ্ধে। কিছু মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, মিহির ও সৌম্য ধোনি, সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এবং বেশ কয়েকটি মিডিয়া হাউসের বিরুদ্ধে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা ও ক্ষতিপূরণ চেয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন।

dhoni chennai

জানা গিয়েছিল, ২০১৭ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং আর্কা স্পোর্টস ম্যানেজমেন্টের মধ্যে একটি ব্যবসায়িক চুক্তি হয়েছিল, যার অধীনে ভারত ও বিদেশে ক্রিকেট একাডেমি খোলার কথা ছিল। অভিযোগ রয়েছে যে এই চুক্তিতে সম্মত হওয়া শর্তগুলি পরে অনুসরণ করা হয়নি। ধোনির আইনজীবীর মতে, ক্যাপ্টেন কুল পুরো ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি পাবেন এবং ৭০:৩০ ভিত্তিতে ধোনি এবং তাঁর অংশীদারদের মধ্যে মুনাফা ভাগ করে নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিজনেস পার্টনার ধোনির অজান্তেই অ্যাকাডেমি খুলতে শুরু করেন এবং কোনও টাকাও নাকি দেননি। এই বিবাদ থেকে শুরু দুই পক্ষের মামলা মোকদ্দমা।

সম্পর্কিত খবর