IPL-র আগে বিধ্বংসী ফর্মে KKR-র বোলার! জিতিয়ে দিল নাইটদের

রবিবার আইএল টি-টোয়েন্টিতে লিগ মরসুমের প্রথম ডাবল হেডার ম্যাচ খেলা হয়েছিল। প্রথম ম্যাচে আন্দ্রেস গাউসের ৯৫ রানের সুবাদে আবুধাবি নাইট রাইডার্স (Abu Dhabi Knight Riders) ৬ উইকেটে হারিয়েছে ডেজার্ট ভাইপার্সকে (Desert Vipers)। রাইডার্স বোলার আলী খান নেন ৩ উইকেট। অধিনায়ক সুনীল নারিন (Sunil Narine) দুই উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি খুব কম রান দিয়েছেন। দুবাইয়ে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন রাইডার্সরা। প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৬৪ রান তোলে ভাইপার্সরা। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ১৭.৪ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে জয়ের কাছে পৌঁছে যায় নাইট রাইডার্স।

ভাইপার্সের হয়ে ব্যাটিং শুরু করেন অধিনায়ক কলিন মুনরো ও অ্যালেক্স হেলস। মুনরো ২২ ও হেলস ১১ রান করেন। এছাড়া ড্যান লরেন্স মাত্র ১৯ রান করতে পেরেছেন। এখান থেকে ইনিংসের হাল ধরেন অ্যাডাম হোস ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। হাসারাঙ্গা করেন ২৪ রান। খাতা খুলতে না পেরে ০ রানে আউট হন শেন রাদারফোর্ড। উইকেটের অন্য দিকে টিকে থাকা অ্যাডাম হোস হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করতে না পারলেও ৩০ বলে ৪৫ রান করেছেন।

   

বাস ডি লিড ১৪ রান, মহম্মদ আমিলার ৪ রান করেন। এছাড়া রোহান মুস্তাফা ১৩ ও তানিশ সুরি ৫ রানে অপরাজিত থাকেন। রাইডার্সের হয়ে ৩ উইকেট নেন আলি খান। এছাড়া সুনীল নারিন নেন ২ উইকেট। একটি করে উইকেট নেন জশ লিটল, ইমাদ ওয়াসিম ও ডেভিড উইলি। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে নাইট রাইডার্সের হয়ে ইনিংস শুরু করেন আলিশান শারাফু ও আন্দ্রেস গাউস। আলিশান করেন ১ রান। যদি অন্য প্রান্তে রয়ে যান গাউস।

মাইকেল পিপার ৩৬, স্যাম হেইন ১ রান, লরি ইভান্স ২১ রান করতে পারেন। অপর প্রান্তে ইনিংস ধরে রেখে ৯৫ রান করে অপরাজিত থেকে দলকে ম্যাচ জেতান গাউস। তাঁর সঙ্গে ৪ রানে অপরাজিত থাকেন ইমাদ ওয়াসিম। ভাইপার্সের হয়ে টাইমাল মিলস ২টি উইকেট পান। এছাড়া ড্যান লরেন্স ও শেলডন কটরেল নেন ১টি করে উইকেট।

সম্পর্কিত খবর