মেয়েকে ধর্ষণের বদলা! ধর্ষকের পরিবারের ৬ জনকে খুন নির্যাতিতার বাবার

অন্ধ্রপ্রদেশের বিশখাপত্তনম থেকে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর সংবাদ। একই পরিবারের মোট ছয় সদস্যের সবাইকে খুন করেছে এক ব্যক্তি। এই নৃশংস অপরাধটি ঘটেছিল বিশাখাপত্তনমের জট্টাদা গ্রামে। শুধু এই নয়, খুন করার পর ঘাতক নিজেই গিয়ে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে। বিষয়টি সামনে আসতেই তাই নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ, আর তারপরই উঠে এসেছে আসল ঘটনা।

পুলিশ তদন্তে নেমে জানতে পারে যে, দুই পরিবারের মধ্যে ছিল পুরনো শত্রুতা। শুধু তাই নয়, পুলিশ আরো জানতে পারে যে, নিহত পরিবারের এক সদস্য ঘাতকের মেয়েকে ধর্ষণ করে। এই খবর পেয়েই নিজের মাথা ঠিক রাখতে পারেননি অভিযুক্ত ব্যাক্তি। এরপরই শোকে, দুঃখে, ঘৃণায় এই কর্মকান্ড ঘটান ওই ব্যক্তি। তবে ধর্ষণ যে করেছিল, সে পলাতক ছিল।

তবে আমজনতা তো বটেই, পুলিশও এই ঘটনায় হতবাক এবং কীভাবে একজন ব্যক্তি একই পরিবারের ছয় সদস্যকে হত্যা করেছে তা নিয়ে গুরুত্ব সহকারে তদন্ত শুরু করে। এ ঘটনার পর চারিদিকে আতঙ্ক ছড়ায়। এই খবর ছড়ার পরই ঘটনাস্থলে ভিড় জমে যায়। এখন এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার পর গোটা গ্রামে চলছে নানা আলোচনা। নিজেকে পুলিশের কাছে হস্তান্তরের পর পুলিশ অভিযুক্তকে হেফাজতে নেয় এবং তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

মেয়ের বাবা

হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্রটিও উদ্ধার করেছিল পুলিশ। প্রতিশোধ নিতে ওই পরিবারের যে ছয়জনকে হত্যা করে অভিযুক্ত তার মধ্যে ধর্ষণের আসামী না থাকলেও এর মধ্যে রয়েছে দুই নারী, দুই শিশু ও একজন পুরুষ। অভিযুক্তকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। লাশগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। এ ঘটনার পর পুরো এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে আছে থমথমে আতঙ্ক। বলে দিই, এই ঘটনাটি গতবছরের এপ্রিল মাসের, যা এখন আবার নতুন করে ভাইরাল হচ্ছে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button