এবার রাতেও মিলবে পরিষেবা, পশ্চিমবঙ্গে এই প্রথম বিশেষ উদ্যোগ চালু করল SBI

গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখে নতুন নিয়ম চালু করলো স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI Bank)। দিনের পাশাপাশি পরিষেবা মিলবে রাতেও আর তাও আবার বাড়িতে বসে বসেই। পাশাপাশি বাড়িতে বসেই পেয়ে যাবেন ব্যাঙ্ক সম্পর্কিত সমস্ত তথ্যও। সাধারণ মানুষের সুবিধার কথা মাথায় রেখেই এই উদ্যোগ নিয়েছে দেশের প্রধান রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্ক, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI)। চলুন জেনে নিই বিস্তারিত।

স্টেট ব্যাঙ্কের এই নতুন উদ্যোগের নাম দেওয়া হয়েছে “আমার গ্রাম আমার ব্যাঙ্ক রাত্রি চৌপাল”। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী ইতিমধ্যেই পূর্ব মেদিনীপুরে চালু হয়ে গিয়েছে এই পরিষেবা। সংস্থাটির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, এরপর ধীরে ধীরে গোটা রাজ্য জুড়েই কার্যকর করা হবে এই নতুন উদ্যোগকে।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যাচ্ছে, রাজ্যের প্রথম উদ্যোগটি নেওয়া হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার নন্দকুমার ব্লকের বহিচবেড়িয়ার SBI শাখায়। এখানেই আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়েছে “আমার গ্রাম আমার ব্যাঙ্ক রাত্রি চৌপাল” পরিষেবার। নন্দকুমারের BDO শানু বক্সি, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া-র পূর্ব মেদিনীপুর জোনের জেনারেল ম্যানেজার অজয় কুমার সিনহা সহ অন্যান্য আধিকারিকদের উপস্থিতিতেই সম্পন্ন হয়েছে এই শুভ কাজটি।

এইদিন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে নন্দকুমারের BDO শানু বক্সি জানান, মানুষের সুবিধার্থে সরকার নানান ধরনের স্কিম চালু করলেও বেশিরভাগ মানুষই অজ্ঞ থেকে যান সেই সব সুযোগ সুবিধা সম্পর্কে। এই সমস্ত স্কিম সম্পর্কে বিশদে জানাতে এবং ব্যাঙ্কের অন্যান্য পরিষেবা আরো সহজে মানুষের কাছে উপলব্ধ করে তুলতেই এই উদ্যোগ। শানু বক্সির বিশ্বাস এই নতুন প্রয়াসে সাধারণ মানুষ যথেষ্ট লাভবান হবেন।

এছাড়াও স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (SBI)-র পূর্ব মেদিনীপুর জোনের জেনারেল ম্যানেজার অজয় কুমার সিনহা জানান যে, খুব শীঘ্রই সমস্ত রাজ্য জুড়েই শুরু হবে এই পরিষেবা। তার কথায়, “গ্রাহকদের সুন্দর পরিষেবা প্রদানের লক্ষ্যে আমরা এই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। সমস্ত স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার শাখায় এই ধরনের পরিষেবা প্রদান করা হবে। ব্যাঙ্কের সময়ের পর এই পরিষেবা প্রদান করা হবে। অনেকে সারাদিন নানা কাজে ব্যস্ত থাকেন। তাঁরা ব্যাঙ্কে আসার সুযোগ পান না। তাঁদের অনেকটাই সুবিধা হবে এই পরিষেবার ফলে। আমরা চাই গ্রাহকদের সুন্দর পরিষেবা প্রদান করতে।”

এর পাশাপাশি নন্দকুমার ব্লকের বহিচবেড়িয়ায় স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার গ্রাহক মৃন্ময়ী ভট্টাচার্য এই পরিষেবা প্রসঙ্গে জানান, “এই ধরনের পরিষেবা গ্রামের মধ্যে চালু হওয়ায় আমরা ভীষণ খুশি। এবার অনেক বেশি ব্যাঙ্কের পরিষেবা সম্পর্কে আমাদের জানা সম্ভব হবে। এই ধরনের পরিষেবা চালু থাকলে অনেকেই উপকৃত হবেন।”

এইদিন মহিষাদলের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা পড়ুয়াদের পড়াশোনার জন্য একটি ৫ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন বিদ্যাসাগর ওয়েলফেয়ার সোসাইটির হাতে।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button