ডায়পার পরে হাবড়ায় রেল লাইনে নাচানাচি, কী শাস্তি দিল পুলিশ? কত টাকা জরিমানা হল স্যান্ডির?

স্যান্ডি সাহার (Sandy Saha) ভিডিও (Video) নিয়ে কম চর্চা হয়না। বিশেষ করে তার জা কন্টেন্ট তার প্রায় পুরোটাই বিতর্কিত। আর সেই কারণে পুলিশের কাছে তার আসা যাওয়া লেগেই থাকে। কিন্তু তার যে পুরনো ঘটনা থেকে কোনো শিক্ষাই হয়নি সেকথা বেশ বুঝিয়ে দিলেন তিনি। এবার রেল পুলিশের (Railway Protection Force) কাছে ডাক পড়লো তার।

আসলে পুলিশের কাছ থেকে ডাক পেয়ে স্যান্ডি নিজেই পৌঁছেছিলেন সেখানে। এরপর পুলিশের আধিকারিকরা খানিকক্ষণ কথা বলে ছেড়ে দেন স্যান্ডিকে। হাবড়ার RPF অফিসের বাইরে দাঁড়িয়ে স্যান্ডি বলেন, ‘‘রেলওয়ে ট্র্যাকে দাঁড়িয়ে আমি ভিডিয়ো করেছিলাম। জানতাম না সেটা বেআইনি। আমি সেখানকার লোককে জিজ্ঞেস করেছিলাম। ওরা বলেছিল ওই লাইনে ট্রেন চলে না। তবে ট্রেন চলুক আর না চলুক রেলওয়ে ট্র্যাকে ফোটো তোলা, নাচ করা সবই বেআইনি, তাই আমি এখানে ফাইন দিতে এসেছি।’’

নিজের বক্তব্যে তিনি আরো যোগ করেন, ‘‘আর আমি তো ১০-১৫ জনকে সঙ্গে নিয়ে আসিনি। আমি বাচ্চার বিরিয়ানি খেতে এসেছি। অনেক ভ্লগাররাই আসে। কিন্তু আমাকে দেখে লোক জড়ো হয়েছে। হয়তো লোক আমাকে বেশি ভালোবাসে বলেই এমন হয়েছে। আমি তো জানতাম না। ওঁরা বলছে আমার জানিয়ে আসা উচিত ছিল নিরাপত্তার খাতিরে।’’

ডায়পার পরে রেললাইনের ওপর তার তুমুল নাচ বেশ ভাইরাল হয়। আর এদিন তার পোশাক পরা নিয়েও প্রশ্ন করা হয়। সেই নিয়ে স্যান্ডির বক্তব্য তিনি ডায়পার পরা নিয়ে নিয়ে তিনি কোনওভাবেই লজ্জিত নন। কারণ এই বিষয়টা পুরোপুরি তার ব্যাক্তিগত। তবে রেল লাইনে ভিডিও বানানো নিয়ে তিনি এবার থেকে অনেকটা সাবধান থাকবেন।

গত ২৭ মার্চ ভিডিওটি পোস্ট করেন ইউটিউবার, ব্লগার স্যান্ডি সহ। সেখানে হাবড়ার এক বিরিয়ানির দোকানে ভ্লগ বানাতে গিয়েছিলেন ডায়পার দিয় পোশাক বানিয়ে। দোকানের মালিকের বাচ্চার সাথে ফ্লার্ট করতেও দেখা যায় তাকে। আর তারপরই ডায়পার পরে নাচেন, রেলনাইনে লাফালাফি করেন। এতেই তাকে হাজিরা দিতে হয় রেল পুলিশের কাছে।