অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে বিচ্ছেদের ভেঙে পড়েছিলেন সাইফ আলি খান, ছবি দেখে কাঁদতেন সারারাত

সম্পর্কে জড়ানো অনেক সহজ হলেও সেখান থেকে বেরিয়ে আসা খুব কঠিন। কিন্তু অনেক সময় পরিস্থিতির কারণে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে বাধ্য হয় প্রেমিক প্রেমিকা। কিন্তু সেই বিচ্ছেদ হয় বড়ই বিরহের। ঠিক তেমনি এক কাপলের বিচ্ছদের বিরহ গল্প বলবো আপনাদের। কিভাবে এই বিখ্যাত অভিনেতা সারারাত কেঁদে বালিশ ভিজিয়েছেন।

এই গল্প বলিউডের (Bollywood) অন্যতম বড় স্টার সাইফ আলি খান (Saif Ali Khan) এবং অমৃতা সিং (Amrita Singh) এর ডিভোর্স নিয়ে। অনেক চেষ্টা করেও যখন তারা তাদের সম্পর্ক টেকাতে পারেননি, তখন বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন দুজনেই। কিন্তু সেই সিদ্ধান্ত সইফ আলি খানকে ভেঙে দিয়েছিল পুরোপুরিভাবে। রাতের পর রাত কেটেছে বিনিদ্রভাবে।

অনেক বিনিদ্র রাত কাটিয়ে, চোখের জলে বালিশ ভেজানো সইফ আলি খান পরবর্তীতে এক সাক্ষাৎকারে বলেন যে, অমৃতা চাননা বলে তিনি তার দুই সন্তান সারা আলি খান এবং ইব্রাহিম আলি খানের সাথে দেখা করতে পারছেননা। সেও খুবই দুঃখের ছিল তার কাছে।

এইজন্য তিনি তার বাচ্চাদের ছবি রাখতেন পার্সের মধ্যে। ছবি দেখেও কাঁদতেন সইফ। নিজের মধ্যে জমে থাকা সেই সমস্ত রাগ ক্ষোভ তিনি বের করে দেন এক সাক্ষাৎকারে। তিনি এও বলেছিলেন যে, তার সন্তানরা যখন বড় হবে, তখন তিনি তাদের কী জবাব দেবেন শিশুরা তো অবশ্যই তাকে প্রশ্ন করবে।

saif amrita

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি যে, সইফ এবং অমৃতার প্রেমের গল্প বলিউডের সিনেমার চেয়ে কম কিছু নয়। দু’জনের দেখা হয়েছিল একটি সিনেমার সেটে। আর প্রথম দেখাতেই সইফ নিজের হৃদয় জমা দেন অমৃতাকে। এরপর ধীরে ধীরে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে এবং শেষ পর্যন্ত একসাথে জীবন কাটানোর সিদ্ধান্ত নেন তিনি। কিন্তু শেষপর্যন্ত টিকলো না সেই সম্পর্ক। বিচ্ছেদেই সমাপ্ত হলো সমস্ত।

➦ আপনার জন্য বিশেষ খবর

Back to top button